সাংবাদিক শিমুল হত্যা: মেয়রের বাড়িতে হামলার ঘটনায় ১৯ আসামীর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারী পরোয়ানা জারি

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি:
সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে সমকালের সাংবাদিক আব্দুল হাকিম শিমুল হত্যার সময় পৌর মেয়র (সাময়িক বহিস্কৃত) হালিমুল হক মিরুর বাড়িতে হামলার ঘটনায় তার স্ত্রীর দায়ের করা মামলার ১৯ আসামীর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারী পরোয়ানা জারি করেছে আদালত। সিরাজগঞ্জ স্পেশাল ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক এ আদেশ জারি করেন। গ্রেপ্তারী পরোয়ানাভুক্ত অন্যতম আসামীরা হলেন, শাহজাদপুর পৌরসভার ভারপ্রাপ্ত মেয়র নাসির উদ্দিন, পৌর আওয়ামীলীগের বহিস্কৃত সভাপতি ভিপি আব্দুর রহিম, তার শ্যালক উপজেলা ছাত্রলীগের বহিস্কৃত সভাপতি শেখ কাজল, উপজেলা তাঁত শ্রমিকলীগের সাধারণ সম্পাদক আল মাহমুদ এবং স্থানীয় সংসদ সদস্যের ব্যক্তিগত সহকারী ও যুবলীগ নেতা আশিকুল হক দিনার।
মঙ্গলবার দুপুরে বাদিপক্ষের আইনজীবি এ্যাড. রফিক সরকার জানান, গত বছরের ২ ফেব্রুয়ারী শাহজাদপুরের পৌর মেয়র হালিমুল হক মিরুর বাড়িতে হামলা, আওয়ামলীলীগের দু’গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও গুলিবর্ষণের ঘটনা ঘটে। ওই সময় পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে সমকালের সাংবাদিক শিমুল গুলিবিদ্ধ হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়। ওই ঘটনায় নিহত সাংবাদিকের স্ত্রী নুরুন্নাহার খাতুন বাদী হয়ে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। একই সময় মেয়রের বাড়িতে হামলা ও গুলিবর্ষণের ঘটনায় মেয়রের স্ত্রী লুৎফুন নেছা পিয়ারী বাদি হয়ে থানায় মামলা করতে যান। কিন্তু থানা মামলা না নেয়ায় তিনি পরবর্তীতে ২৩ এপ্রিল ১৭ জনকে আসামী করে আদালতে মামলা দায়ের করেন। পুলিশ মামলাটির তদন্ত শেষে সকল আসামীদের বাদ দিয়ে আদালতে চুড়ান্ত প্রতিবেদন দাখিল করে। এরপর মামলার বাদি আদালতে নারাজি দিয়ে মামলাটি জুডিশিয়াল তদন্তের জন্য আবেদন করেন। আবেদনটি আমলে নিয়ে জুডিশিয়াল স্বাক্ষী গ্রহণের পর ১৯ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগটি প্রাথমিকভাবে আদালতে প্রমাণিত হয়। পরে মামলাটি দন্ডবিধি ও বিস্ফোরক আইনের দুটি ধারার মধ্যে শাহজাদপুর আমলী আদালতের বিচারক দন্ডবিধি ধারায় আসামীদের বিরুদ্ধে সমন জারি করেন এবং বিস্ফোরক আইনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য স্পেশাল ট্রাইব্যুনাল-১ এ নথি প্রেরণ করেন।
বাদিপক্ষের আইনজীবি আরও বলেন, গত ২ জানুয়ারী স্পেশাল ট্রাইব্যুনাল-১ এর ভারপ্রাপ্ত বিচারক অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মো. রফিকুল ইসলাম মামলাটির শুনানী শেষে ১৯ আসামীর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারী পরোয়ানা জারি করেন। এর আগে আমলী আদালতের জারি করা সমনে আসামীদের ১৭ ডিসেম্বর আদালতে হাজির হতে বলা হয়েছিল। কিন্তু ১৯ আসামীর মধ্যে ১৫ জন উচ্চ আদালত হাজির হয়ে ৬ সপ্তাহের অন্তবর্তীকালিন জামিন নিয়েছেন। আগামী ২৩ জানুয়ারী আবারও তাদেরকে আমলী আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক।
এ বিষয়ে শাহজাদপুর থানার ওসি খাজা মো: গোলাম কিবরিয়া বলেন, আদালতের গ্রেপ্তারী পরোয়ানার আদেশ হাতে এসে পৌছেনি।
প্রসঙ্গত, গত বছরের ২ ফেব্রুয়ারী আওয়ামীলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ চলাকালে পেশাগত দায়িত্ব পালনের সময় গুলিবিদ্ধ হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সমকালের শাহজাদপুর প্রতিনিধি আব্দুল হাকিম শিমুল পরদিন মারা যায়।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author