প্রধান মেনু

রাতে রুটি খাওয়ার উপকারিতা কী?

আমরা খাদ্যতালিকায় ভাতের সাথে যে খাবারটি প্রায় সব সময়েই রাখি তা হলো রুটি। সকালের নাস্তা ছাড়াও রাতে অনেকে রুটি খেয়ে থাকেন। কিন্তু রাতে রুটি খাওয়ার উপকারিতা কী কী জানেন?
ভাতের পরেই রুটি আমাদের দৈনন্দিন জীবনে খাবারের মধ্যে অন্যতম পুষ্টিকর খাদ্য। রুটির প্রধান উপাদান আটায় থাকে বিভিন্ন পুষ্টিকর উপাদান যা আমাদের হার্ট অ্যাটাকের সম্ভাবনা কমিয়ে দেয়।

রাতে রুটি খেলে তা একাধিক সমস্যার সমাধান করে শরীরকে ফিট রাখে। আটার সবচেয়ে ভাল গুণ হলো এতে কোন ফ্যাট থাকে না। তাই রাতে রুটি খেলে শরীরে কী কী পরিবর্তন ও উপকার হয় জেনে নিন।
ওজন কমায়ঃ রুটিতে ক্যালোরির পরিমান খুবই কম, তাই রুটি খেলে শরীরের ওজন বৃদ্ধি হয় না এবং শরীর ফিট থাকে।
চর্বি কমায়ঃ রুটিতে যেহেতু ফ্যাট থাকে না তাই রুটি খেলে ফ্যাট অর্থাৎ চর্বির হওয়ার সম্ভাবনা কমে ও চর্বি কমাতেও সাহায্য করে।
সুগারের মাত্রা ঠিক রাখেঃ রুটিতে গ্লাইসেমিক ইন্ডেক্স নামক উপাদান কম থাকায় রক্তে সুগারের মাত্রা ঠিক থাকে। যা ডায়াবেটিস রোগীদের ক্ষেত্রে খুবই উপকারি।

ভিটামিন ও খনিজঃ শরীর গঠনে যে সকল ভিটামিন ও খনিজের দরকার হয় তা সবই থাকে রুটিতে। তাই রাতে রুটি খেলে আমাদের ভিটামিন ও খনিজের চাহিদা পূরণ হয়।
অন্যান্য রোগের আশঙ্কা কমায়ঃ রুটি খেলে রক্ত চাপ নিয়ন্ত্রণ করা যায়, হার্ট অ্যাটাক, স্ট্রোকের মতো মারাত্মক রোগের আশঙ্কাও কমে যায় অনেক।

হজম ক্ষমতা বাড়ায়ঃ রুটিতে থাক্স ফাইবার থাকে যা আমাদের শরীরের হজম ক্ষমতা বাড়িয়ে দেয়। ফলে বদহজম, গ্যাস, বুক জ্বালার মতো শারীরিক সমস্যা থেকে খুব সহজেই মুক্তি পাওয়া যায়।