খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে: রিজভী
বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ হওয়ায় আগামী নির্বাচনকে সামনে রেখে বিএনপি চেয়ারপারসন সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে জাল নথি তৈরি করে মিথ্যা সাজানো মামলায় কারাগারে বন্দী রাখা হয়েছে। সরকারি নির্দেশে জামিন স্থগিত করে রাখা হয়েছে, যা মানবধিকারের চূড়ান্ত লঙ্ঘন। শুধুমাত্র  ক্ষমতাকে দীর্ঘায়িত করতেই সরকারি সহিংসতার ব্যাপক রুপ ধারণ করেছে। কারাবন্দী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে সারাদেশে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে।
শনিবার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরির ঘটনায় বিএনপি যে অভিযোগ করেছিল তা এখন সত্য হয়েছে বলে দাবি করে রুহুল কবির রিজভী বলেন, নিউইয়র্ক ফেডারেল রিজার্ভ থেকে বাংলাদেশ ব্যাংকের ৮১ মিলিয়ন ডলার চুরি হওয়ার ঘটনা রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় হয়েছে বলে এফবিআই নিশ্চিত করেছে। বিশ্বের সর্ববৃহৎ রিজার্ভ চুরির ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের নাম প্রকাশের কাছাকাছি পৌঁছেছে বলে এফবিআই জানিয়েছে।
তিনি বলেন, দলের পক্ষ থেকে আমরা যে অভিযোগ করেছিলাম তা এখন সত্য হয়ে দাঁড়িয়েছে। বিশ্বের ইতিহাসে এতবড় ব্যাংক ডাকাতির ঘটনাটির তদন্ত প্রতিবেদন অর্থমন্ত্রী কেন এত বছর ধরে আটকিয়ে রেখেছেন, এফবিআই’র রিপোর্টে সেটি এখন পরিষ্কার।
পাশাপাশি তারা মৌলিক মানবাধিকারের প্রতি সম্মান দেখাতে জরুরি ভিত্তিতে পদক্ষেপ নিতে আহ্বান জানিয়েছে। অবাধ ও সুষ্ঠু জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠান করতে সরকারের প্রতি তারা সুপারিশ করেছে।
সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক রহুল কুদ্দুস তালুকদার দুল, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ প্রমুখ।
Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author