চাটমোহরের সমাজ সেবক মাজেদকে শির:চ্ছেদ করে হত্যার হুমকি আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের

চাটমোহর (পাবনা) প্রতিনিধি ঃ পাবনার চাটমোহর উপজেলার ডিবিগ্রাম ইউনিয়নের ধানবিলা গ্রামের মৃত ফয়েজ উদ্দিন সরকারের ছেলে বিশিষ্ট সমাজ সেবক সাবেক ব্যাংকার আবু সালেহ মো. মাজেদকে শির:চ্ছেদ করে হত্যার হুমকী দিয়ে চিঠি পাঠিয়েছে নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গী সংগঠন ’আনসারুল্লাহ বাংলা টিম’র জনৈক সদস্য।

শুক্রবার মাজেদ সাহেব তার গ্রামের বাড়িতে অবস্থান কালে রাতের কোন এক সময় বাড়ির দক্ষিণের বারান্দায় এ চিঠি পরে থাকতে দেখেন তিনি। চিঠি পড়ে ভীত সন্ত্রস্থ হয়ে নিজের নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে চাটমোহর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেছেন (ডায়েরী নং ১৯৯)।
সাধারণ ডায়েরী সূত্রে জানা গেছে, রোটারী আবু সালেহ মো. মাজেদ মানবাধিকার সংগঠনসহ বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের সাথে সম্পৃক্ত। ফয়েজ ফাউন্ডেশনের তিনি প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি। ফয়েজ ফাউন্ডেশন জঙ্গীবাদ, মাদকবিরোধী, বাল্য বিবাহ বিরোধী এবং সামাজিক বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক কর্মকান্ড পরিচালনা করে আসছে। তিনি ঢাকায় বসবাস করলেও বৃদ্ধা মাকে দেখার জন্য প্রায়ই বাড়িতে আসেন। বাড়িতে থাকা কালে এলাকার যুবসমাজসহ সর্বস্তরের মানুষকে সংঘটিত করে সামাজিক কর্মকান্ড পরিচালনা করেন। ৬ এপ্রিল শুক্রবার সকাল সাড়ে ৬ টার সময় তিনি তার বাড়ির দক্ষিণের বারান্দায় একটি টিঠি পরে থাকতে দেখেন। চিঠির প্রেরক “সদস্য আনসারুল্লাহ বাংলা টিম পাবনা”। চিঠিতে জঙ্গীবাদ ও বাল্য বিবাহ নিয়ে কোন রকম কর্মকান্ড চালালে তাকে শির:চ্ছেদ করা হবে মর্মে হুমকি প্রদান করা হয়েছে”।
সদস্য, আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের নাম ব্যবহার করে প্রেরীত চিঠিতে বলা হয়েছে, আপনি এলাকায় নতুন ফিতনা কায়েম করতে চেষ্টা করছেন। আশে পাশের ছেলে মেয়েদের ধর্মীয় শিক্ষা না দিয়ে তাদের নাচ গানের অনুষ্ঠান করে বেলেল্লাপনা শিখাচ্ছেন। আপনি এলাকায় বিধর্মীয় রীতি নীতি প্রতিষ্ঠা করতে মরিয়া হয়ে উঠেছেন। আপনাকে এখন আমাদের ইহুদী নাসারদের এজেন্ট বলে মনে হয়। আপনি বাল্য বিবাহ, জঙ্গীবাদ এসমস্ত ব্যাপারগুলো নিয়ে বড্ড বাড়াবাড়ি করছেন। আপনার উদার শয়তানি চিন্তা চেতনা এবং অনৈসলামিক সমাজ ভাবনা আপনার মধ্যে সীমাবদ্ধ রাখলেই মঙ্গল হবে। আমাদের মনে হয় আপনি একজন নাস্তিক টাইপের মানুষ। পৃথিবীতে খেলাফত প্রতিষ্ঠা হোক তা আপনাদের মত নাদান, কুলঙ্গার ইসলাম বিদ্বেষী লোকজন চায় না বলেই পশ্চিমা বিশে^র তালে তালে আপনারা আমাদের জঙ্গি হিসেবে চিহ্নিত করার ব্যর্থ চেষ্টা করছেন যুগে যুগে। জঙ্গিবাদ নিয়ে পুনরায় এলাকায় কোন সভা সমাবেশ বা প্রচার প্রচারণা চালালে আপনার ভাগ্য হবে ঐসব মুর্তাদদের মতো যাদের ইতোমধ্যেই কতল করে জাহান্নামে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য কয়েক বছর পূর্বে বিএনপির রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত হন আবু সালেহ মাজেদ। পাবনা-৩ এলাকা থেকে এমপি মনোনয়ন প্রত্যাশীও ছিলেন তিনি। এ লক্ষ্যে এলাকায় সভা সমাবেশ ও করেন। পরে বিভিন্ন প্রতিকূলতায় রাজনীতি থেকে দূরে সরে সমাজ সেবায় আগ্রহী হয়ে সমাজের উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডে সম্পৃক্ত হন।

এ বিষয়ে চাটমোহর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এস এম আহসান হাবীব জানান, এ ব্যাপারে আবু সালেহ মাজেদ থানায় সাধারণ ডায়েরী করেছেন। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে এবং প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author