পাবনা’র বেড়া মহাসড়কে তীব্র যানজট

শফিক আল কামাল ॥পাবনা’র বেড়া মহাসড়কে তীব্র যানজট পাবনার বেড়া’য় করমজা হাটে পাবনা-ঢাকা মহাসড়কে প্রতিদিনই তীব্র যানজট’র সৃষ্টি হচ্ছে। বেড়া পৌরসভার অন্তর্ভুক্ত করমজা উত্তরাঞ্চলের সবজির অন্যতম প্রধান পাইকারি হাট হিসেবে পরিচিত। প্রতি শনি ও মঙ্গলবার এখানে হাট বসে। দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে সবজি ব্যবসায়ীরা এখানে এসে কৃষকদের কাছ থেকে সবজি ক্রয় করেন। ভোর থেকেই হাটে কৃষক ও সবজি বিক্রেতারা মহাসড়কের পাশে সবজির পশরা সাজিয়ে বসে যান। বেশির ভাগ দিনই মহাসড়ক-সংলগ্ন অংশ ছাড়িয়ে সবজির হাট মহাসড়কের ওপর পর্যন্ত পৌঁছে যায়। হাটের পূর্ব দিকের অংশে পেঁয়াজ, আসবাবপত্রসহ বিভিন্ন পণ্যের পসরা বসার পরও অনেক জায়গা ফাঁকা। সবজি বেচাকেনার জন্য কৃষক ও আড়তদারদের ওই অংশ ব্যবহার করতে বলেছে হাট কমিটি। তারপরও কৃষকেরা সবজি এনে হাটের ওই অংশের পরিবর্তে মহাসড়কে গিয়ে বসছেন। পাইকারি ক্রেতারাও সেখানে গিয়েই সবজি কিনছেন।
নাম প্রকাশ না করার শর্তে দুজন সবজি আড়তদার বলেন, মহাসড়কের পাশে ১০ থেকে ১২টি সবজির আড়ত রয়েছে। সবজি ক্রেতারা এসব আড়ত থেকেই সবজি ক্রয় করেন। এ জন্য ভেতরে জায়গা থাকলেও আড়তের সামনে কৃষকদের উৎপাদিত পণ্য নিয়ে বসতে বলেন তাঁরা। মহাসড়কের প্রায় মাঝ বরাবর পটোলের বস্তা নিয়ে বিক্রির জন্য দাঁড়িয়ে ছিলেন সাঁথিয়া উপজেলার সবজিচাষি আশকার আলী। তিনি বলেন ‘অটোভ্যানের থাকায় মহাসড়কের ওপর পটোলের বস্তা নামায়া বেচাকেনার জন্য দাঁড়াইছি। হাটের ভেতরে বস্তা নেওয়া কঠিন, কেনার লোকের অভাবে বেচাও কঠিন।’ যানজটে আটকে থাকা সিরাজগঞ্জ থেকে পাবনাগামী যাত্রীবাহী বাস সোনার বাংলা পরিবহনের চালক মোখলেছুর রহমান বলেন, ‘৩০ মিনিট এহানে আইটক্যা রইছি। আরও কতক্ষণ থাকা লাগবি কিডা জানে।’ পাবনা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সহ-সভাপতি মো. রইজ উদ্দিন বলেন, ‘করমজা হাটের যানজটে সাধারণ মানুষ যেমন দুর্ভোগ পোহাচ্ছে, তেমনি পরিবহন খাতেও বিশৃঙ্খল অবস্থার সৃষ্টি হচ্ছে। যানজটে আটকে থাকায় প্রায়ই বিভিন্ন বাসের ট্রিপ মিস হয়ে যাচ্ছে। বিষয়টি নিয়ে আমরা চিন্তা ভাবনা করছি। যানযট নিরসনে অচিরেই আমরা উদ্যোগ গ্রহন করবো।

 

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author