হাট-বাজারে খাজনার নামে ইজারাদাররা অতিরিক্ত টাকা হাতিয়ে নিলেও দেখার কেউ নেই

ঈশ্বরদীতে মত বিনিময় সভায় দেশের সফল কৃষকদের অভিযোগ
স্টাফ রিপোর্টার, ঈশ্বরদী ॥ দেশের সফল ও জাতীয় পদক প্রাপ্ত কৃষকরা ঈশ্বরদীতে সদ্য যোগদানকারি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আল মামুনের সাথে মতবিনিময় করেছেন। বুধবার বিকেলে ঈশ্বরদী উপজেলা পরিষদ সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য দেন, ঈশ্বরদী উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান রিপন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাহমুদা বেগম ও অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা রোকসানা কামরুন্নাহার।
বাংলাদেশ কৃষক উন্নয়ন সোসাইটির সভাপতি ও বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পদক প্রাপ্ত দেশের সফল কৃষক ছিদ্দিকুর রহমান কূল ময়েজের সভাপতিত্বে কৃষকদের মধ্যে বক্তব্য দেন, বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি স্বর্ণ পদক প্রাপ্ত সফল কৃষক বেলী বেগম, বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পদক প্রাপ্ত সফল কৃষক জাহিদুল ইসলাম গাজর জাহিদ, বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পদক প্রাপ্ত সফল কৃষক আলহাজ্ব রবিউল ইসলাম, মৎস্য চাষি আবু তালেব জোয়াদ্দার, মৎস্য চাষি কবির মালিথা, কৃষক হাসিবুর রহমান বাঘা বিশ্বাস, মোঃ জাকিরুল ইসলাম, আব্দুল হাই, সাইদার হোসেন কপি বাবু ও শাহিন হোসেনসহ অন্যান্য কৃষকরা।
বক্তারা বলেন, বর্তমানে কৃষকের উৎপাদিত সকল পণ্যেই লোকশান হচ্ছে। এরপর তা হাট-বাজারে বিক্রি করতে গেলে খাজনার নামে ইজারাদারের লোকেরা কৃষকদের কাছ থেকে হাতিয়ে নিচ্ছেন অতিরিক্ত শতকরা দশ টাকা। এক দিনের একটি বাচ্চাসহ একটি গাভী গরু বিক্রি করলেও খাজনা গুনে দিতে হয় অতিরিক্ত এক হাজার টাকা। কৃষি পণ্য বিক্রির পর কৃষকের কাছ থেকে খাজনা নেয়া সরকারের পক্ষ থেকে নিষেধ থাকলেও ইজারাদারের লোকেরা বুড়ো আঙ্গুল দেখিয়ে তাদের ইচ্ছে মতো অধিকমাত্রায় খাজনা আদায় করলেও দেখার কেউ নেই।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author