পত্নীতলায় মেয়েকে ধর্ষনের অভিযোগে পিতা আটক

সিয়াম সাহারিয়া,পত্নীতলা(নওগাঁ)প্রতিনিধি:নওগাঁর পত্নীতলায় ১৩ বছরের কিশোরী সৎ মেয়েকে ধর্ষনের অভিযোগে থানা পুলিশ শুক্রবার দুপুরে জারজীস (৪৫) নামক এক ব্যক্তিকে আটক করেছে। ধর্ষীতা কিশোরীর মায়ের দায়েরকৃত এজাহারের প্রেক্ষিতে থানা পুলিশ তাকে আটক করে। আটককৃত জারজীস উপজেলার কৃষ্ণপুর ইউনিয়নের গোপীনগর-তেঁতুলিয়া গ্রামের আছির উদ্দীনের ছেলে। সে স্থানীয় একটি ইট ভাটায় ফোর ম্যানের কাজ করে।

থানা সূত্রে জানা গেছে, গত ২৫ এপ্রিল রাত ১টায় জারসীস মেয়ের ঘরে ঢুকে তাকে ধর্ষণ করেন। ২৭ এপ্রিল শুক্রবার সকালে মেয়েটির মা ছবি বেগম ধর্ষণের অভিযোগে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন সংশোধনী ২০০৩ এর ৯/১ ধারায় থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলা নং-৪৩। পত্নীতলা থানার এস,আই আরিফুল ইসলামের নেতৃত্বে পুলিশের একটি টিম শুক্রবার দুপুরে জারজীসকে কর্মস্থল থেকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। এ বিষয়ে পত্নীতলা থানা পুলিশ পরিদর্শক ওসি (তদন্ত) জহুরুল হক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ভিকটিম কে উদ্ধার করে প্রয়োজনীয় পরীক্ষার জন্য নওগাঁ সিভিল সার্জনের কার্যালয়ে পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে স্থানীয় কয়েকজনের সাথে কথা বললে তাঁরা জানান, জারজীস মাঝে মাঝেই নেশা পান করতো এবং স্ত্রীর সাথে ঝগড়া বিবাদ হতো। এ কারণে তাঁর প্রথম স্ত্রী তাকে ছেড়ে চলে গেলে সে ২য় বিবাহ করে। ধর্ষণের শিকার হওয়া কিশোরী জারজীসের ২য় স্ত্রীর আগের স্বামীর হলেও সে তাঁর মায়ের সাথে জারজীসের বাড়িতেই থাকতো। সৎ মেয়েকে ধর্ষণের বিষয়টি জানাজানি হলে এ বিষয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্য ও গণমান্য ব্যক্তিদের নিয়ে শালিসী বৈঠক হয়। কিন্তু শালিসী বৈঠকে জারজীস অংশগ্রহণ না করায় মেয়ের মা ছবি বেগম বাদী হয়ে থানায় মামলা করেন।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author