পাবনা’র বেড়ায় স্কুল শিক্ষার্থী ধর্ষণ ॥ খালু গ্রেফতার

পাবনা প্রতিনিধি ॥ পাবনার বেড়া উপজেলা’য় তেঘরী এলাকায় তৃতীয় শ্রেণীর এক শিশু স্কুল শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে তার পাষন্ড খালুর বিরুদ্ধে। গুরুতর অসুস্থ্য অবস্থায় শিশুটিকে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত আমিনুল ইসলাম (৩২) কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

শিশুটির স্বজনেরা জানান, বেড়া উপজেলার হরিরামপুর গ্রামের আব্দুল কাদের ফকিরের ছেলে আমিনুল ইসলাম বেড়া পৌর এলাকার তেঘরী মহল্লার কাজেম ফকিরের মেয়েকে বিয়ে করে তার বাড়িতে ঘরজামাই থাকে।

মঙ্গলবার (০১’মে) সন্ধ্যায় স্থানীয় মসজিদ থেকে তাবারক নিয়ে বাড়ি ফিরছিলো ধর্ষণের শিকার শিশু (১০)। এ সময় আমিরুল তাকে ডেকে বাড়ির ভেতর নিয়ে গিয়ে জোর পূর্বক ধর্ষণ করে তার খালু আমিনুল। মেয়েটি বাড়িতে আসলে তার রক্তক্ষরণে দেখে স্বজনেরা বিষয়টি বুঝতে পেরে শিশুটিকে প্রথমে বেড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে রাতেই তাকে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

বেড়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোজাফ্ফর হোসেন জানান, খবর পেয়ে পুলিশ অভিযান চালিয়ে মঙ্গলবার রাতে অভিযুক্ত ধর্ষক আমিনুল ইসলামকে আটক করে। এ ঘটনায় বুধবার (০২’মে) সকালে শিশুটির পিতা বাদি হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

পাবনা জেনারেল হাসপাতালের ইন্টার্ন চিকিৎসক আমিরুল ইসলাম জানান, শিশুটির প্রচুর রক্তক্ষরণসহ প্রকাশ না করার মতো বড় সমস্য দেখা দিয়েছে। তার একটি অপারেশন করা হয়েছে। বর্তমানে শিশুটি আশঙ্কামুক্ত। তবে সুস্থ্য হতে বেশ কিছুদিন সময় লাগবে। সুস্থ্য হওয়ার পরেও শিশুটিকে কিছুদিন বিশ্রামে থাকতে হবে।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author