Main Menu

পাবনায় বাঁশের চাটাই দিয়ে মুক্তিযোদ্ধাকে গার্ড অব অনার ! তুমুল আলোড়ন

পাবনায় এক মুক্তিযোদ্ধার মৃত্যুর পরে তার জানাযা নামাজে অর্থাৎ তার শেষ বিদায়ে ভাগ্যে জোটেনি একটি জাতীয় পতাকা। মৃত দেহ ঢেকে দিতে এই পতাকার পরিবর্তে তাকে বাঁশের চাঁটাই দিয়ে রাষ্ট্রীয় পর্যাদা প্রদান করায় তুমুল আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছে পাবনা জেলা সহ সমগ্র দেশে।

এ ঘটনায় ওই মুক্তিযোদ্ধার পরিবার, স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধাসহ এলাকার মানুষের মেেধ্য ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। গত শুক্রবার মুক্তিযোদ্ধা তাহেজ উদ্দিন সরকারের মৃত্যু হলে ঘটনাটি পাবনার বেড়া পৌর এলাকার শহীদ আব্দুল খালেক স্টেডিয়ামে শনিবার এভাবে রাষ্ট্রীয় সম্মান জানানো হয়। এ সময় বেড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মাহবুব হাসান, স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধারাসহ সকল পর্যায়ের লোকজন উপস্থিত ছিলেন।

বেড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) ও উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) মাহবুব হোসেনের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আসলে বিষয়টি নিতান্তই অনিচ্ছাকৃত ভুল। জাতীয় পতাকা মোড়ানোর বিষয়টি উপস্থিত সকলের দৃষ্টি এড়িয়ে গেছে। গার্ড অব অনার দেয়ার পর বিষয়টি সবার নজরে আসে। স্বীকার করছি, এটা আমার ভুল হয়েছে।
এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে জেলা মুক্তিযোদ্ধ সংসদের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার আব্দুল বাতেন ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, জাতীয় পতাকা মোড়ানো ছাড়া গার্ড অব অনার-ই তো হবে না। তাহলে একজন মুক্তিযোদ্ধা কিভাবে রাষ্ট্রীয় মর্যাদা পেলেন বুঝলাম না। একজন বা দু’জনের নজরে পড়েনি, তাই বলে জানাজায় উপস্থিত কারোরই কি নজরে এলো না? এ ভুল ক্ষমারযোগ্য নয়। আমি বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানাচ্ছি।
এদিকে, বীর মুক্তিযোদ্ধা তাহেজ উদ্দিনকে গার্ড অব অনার দেয়ার সময় তার কফিনে জাতীয় পতাকা না দেয়ার বিষয়টি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ব্যাপক সমালোচনা ঝড় উঠেছে। ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে অনেকে ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও দায়িত্ব পালনে অবহেলার দায়ে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানিয়েছেন।