চাটমোহরে এক মাসের শিশুর পাশে মায়ের ঝুলন্ত লাশ !

পাবনার চাটমোহরে এক মাসের শিশুকে বিছানায় শুইয়ে রেখে পাশেই এক মা গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছে। পারিবারিক কলহের জেরে রোকশানা খাতুন (২০) নামে ঐ গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছে বলে এলাকাবাসীর ধারনা। তবে গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যা করে লাশ ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে মর্মে অভিযোগ গৃহবধূর বাবার বাড়ির স্বজনদের। শনিবার দুপুর ১২ টার দিকে মূলগ্রাম ইউনিয়নের বালুদিয়ার গ্রামে ঘটনাটি ঘটে।

নিহত গৃহবধূ রোকশানা উপজেলার মূলগ্রাম ইউনিয়নের বালুদিয়ার গ্রামের তামিম খন্দকারের স্ত্রী ও একই উপজেলার ফৈলজানা ইউনিয়নের শরৎগঞ্জ এলাকার আফাজ উদ্দিন প্রাং এর মেয়ে। খবর পেয়ে থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে এসেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, প্রায় দেড় বছর আগে গৃহবধূ রোকশানার সাথে তামিমের বিয়ে হয়। বিয়ের পরে তাদের সংসার বেশ ভালই চলছিল। এর মধ্যে গত এক মাস আগে তাদের সংসারে একটি পুত্র সন্তান জন্ম গ্রহন করে। গত দু’দিন আগে সে বাবার বাড়ি থেকে শশুর বাড়িতে আসার পরে সংসারে একটু ভুল বোঝাবুঝি ও মন মালিন্য দেখা দেয়। এসকল কারনেই বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে অভিমানে বাচ্চাকে বিছানায় শুইয়ে রেখে পাশেই গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করে। তবে এ ঘটনায় গৃহবধূর বাবার বাড়ির লোকজন স্থানীয় কিছু মানুষের বরাতে বলছেন, তাদের মেয়েকে পিটিয়ে হত্যা করে লাশ ডাবের সাথে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে।
ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন মূলগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রাশেদুল ইসলাম বকুল।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author