বিশ্বনাথে নদী ভাঙ্গন এলাকা পরিদর্শন করলেন শফিক চৌধুরী

বিশ্বনাথ প্রতিনিধি :: সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার লামাকাজী ইউনিয়নে সুরমা নদীর ভাঙ্গন এলাকা (মাহতাবপুর, গোলচন্দ, লামাকাজী বাজার, পরগনাবাজার) সোমবার (১৮জুন) পরিদর্শন করেছেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও স্থানীয় সাবেক এমপি আলহাজ্ব শফিকুর রহমান চৌধুরী। এসময় তিনি নদী ভাঙ্গনে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারবর্গের খোঁজ-খবর নেন এবং ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারগুলোকে দ্রুত সাহায্য-সহযোগীতা প্রদানের ব্যবস্থা গ্রহন করতে উপজেলা প্রশাসনকে নির্দেশ প্রদান করেন।
পরিদর্শনকালে সাবেক এমপি আলহাজ্ব শফিকুর রহমান চৌধুরী বলেন, আসছে শীত মৌসুমে নদী ভাঙ্গন প্রতিরোধ করতে ‘প্রায় ১শ ১২ কোটি টাকা’ ব্যয়ে গৃহিত প্রকল্পের কাজ শুরু হবে। সরকারের সকল উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নের মতো এই প্রকল্প বাস্তবায়নেও এলাকাবাসীর সার্বিক সহযোগীতার প্রয়োজন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র নেতৃত্বাধীন সরকারের আমলে সকল শ্রেণী-পেশার ব্যক্তিবর্গ নিজেদের প্রাপ্য অধিকার পাবেন। কেউই নিজের অধিকার পাওয়া থেকে বঞ্চিত হবেন না।
এসময় তার সাথে উপস্থিত ছিলেন পানি উন্নয়ন বোর্ড সিলেটের নির্বাহী প্রকৌশলী সিরাজুল ইসলাম, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) অমিতাভ পরাগ তালুকদার, উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আমির আলী চেয়ারম্যান, যুগ্ম সম্পাদক মকদ্দছ আলী, মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক রনজিৎ ধর রন মেম্বার, স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক জহির উদ্দিন, অর্থ সম্পাদক নূরুল ইসলাম, কার্যনির্বাহী সদস্য নিজাম উদ্দিন, উপদেষ্ঠা পরিষদের সদস্য শের আলী, লামাকাজী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি রইছ আলী, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক অরবিন্দু পাল, লামাকাজী ইউপির প্যানেল চেয়ারম্যান-১ এনামুল হক এনাম মেম্বার, ইউপি মেম্বার হেলাল আহমদ, ফয়ছল আহমদ, মোঃ নুরুজ্জামান, আওয়ামী লীগ নেতা জসিম উদ্দিন, অতুল দাশ, আবদুর রব, আবু বক্কর ফয়সল, মোহাম্মদ আলী, ছিদ্দিকুর রহমান, লামাকাজী ইউনিয়ন যুবলীগের সহ সভাপতি সমর আলী, সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম সিরাজ, যুবলীগ নেতা আবুল কালাম আজাদ, নূরশেদ আহমদ, মনোহর হোসেন মুন্না, দবির মিয়া, লিটন মিয়া, অ্যাডভোকেট সায়েদ আহমদ, বদরুল ইসলাম দিদার, রুবেল আহমদ, লোকমান আহমদ, শামছুল ইসলাম, তাতির আলী, আফরোজ আলী, ফুলকাছ মিয়া, লামাকাজী ইউনিয়ন সেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক জহির উদ্দিন, যুগ্ম সম্পাদক আমির হোসেন ছমির, সাংগঠনিক সম্পাদক আলী আকবর লিকন, সেচ্ছাসেবক লীগ নেতা এরশাদ আলী, আতিক মিয়া, হিরণ মিয়া, আকলুছ মিয়া, ফারুক আহমদ, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সম্পাদক আকমল হোসেন, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শীতল বৈদ্য, সহ সভাপতি শিপন আহমদ, ছাত্রলীগ নেতা কামরুল ইসলাম, কবির আহমদ, ইকবাল আহমদ, মারজানুল ইসলাম ইমন, সাব্বির বখত, রাশেদ আহমদ, বদরুল গণি, লোকমান আহমদ, সুমন আহমদ, মিজান মিয়া, দুলাল আহমদ, ছানাউর রহমান প্রমুখ’সহ বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার ব্যক্তিবর্গ ও বিভিন্ন পর্যায়ের দলীয় নেতাকর্মী।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author