নাটোরে ১৫ জন নিহত: বাস মালিক ও হেলপার গ্রেফতার

নাটোরে সড়ক দুর্ঘটনায় ১৫ জন নিহত হওয়ার মামলায় বাসের মালিক ও বাসের সহকারীকে (হেলপার) গ্রেফতার করেছে বগুড়া সদর থানা পুলিশ। রবিবার বাস মালিককে শহরের মধ্যপালশা ও হেলপারকে বিকেলে মহাস্থানগড় এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়।

বগুড়া সদর থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গত শনিবার নাটোরে চ্যালেঞ্জার নামের একটি যাত্রীবাহী বাস একটি লেগুনাকে চাপা দিলে ১৫ জন নিহত হয়। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের হলে রবিবার দুপুরে বগুড়া সদর থানা পুলিশ শহরের মধ্য পালশা এলাকার বাড়ি থেকে চ্যালেঞ্জার পরিবহনের মালিক মঞ্জু সরকারকে গ্রেফতার করে।

মঞ্জু সরকার পুলিশকে জানান, তার বাসের চালক শামিমের বাড়ি শহরের মালগ্রামে এবং হেলপার কমলের বাড়ি সদরের গোকুল গ্রামে।

মঞ্জু সরকারের দেওয়া তথ্যে পুলিশ বাসের হেলপার আব্দুস সামাদ ওরফে কমলকে মহাস্থানগড় এলাকা থেকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত বাসের হেলপার বগুড়া সদরের গোকুল পশ্চিমপাড়ার আব্দুল বারীর ছেলে। তবে চালক শামিম পলাতক থাকায় তাকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি।

বগুড়া সদর থানার ওসি এসএম বদিউজ্জামান জানান, চালককে গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। বাস মালিক ও হেলপারকে নাটোর পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author