আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের অপেক্ষায় গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের কার্যক্রম

আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের অপেক্ষায় রয়েছে নব গঠিত গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের কার্যক্রম।

কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে সেপ্টেম্বরের প্রথম সপ্তাহে আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের সম্ভাবনা রয়েছে ‘গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের’ (জিএমপি)।

এজন্য প্রস্তুতিমূলক কার্যক্রমও শুরু হয়েছে বলে জানান (জিএমপি)’র পুলিশ কমিশনার ওয়াই এম বেলালুর রহমান।

পুলিশ কমিশনার বলেন, গাজীপুর পল্লীবিদ্যুৎ অফিসের পশ্চিমে ভাড়া করা একটি ভবনে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের (জিএমপি) হেড কোয়ার্টার্সের কার্যক্রম চালানো হচ্ছে। অফিসের আসবাবপত্র গুছানো হচ্ছে। ইন্টারনেট কানেক্টিভিটিও শেষ হয়েছে। জিএমপির লগো মন্ত্রণালয়ে অনুমোদনের জন্য অপেক্ষায় রয়েছে।

এছাড়া সিটি এসবি, ডিসি ট্রাফিকসহ বিভিন্ন অফিসের কার্যক্রম চালানোর জন্য ইতোমধ্যে ভাড়া বাড়ি দেখা হয়েছে বলেও জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।

আগামী সেপ্টেম্বরের প্রথম সপ্তাহে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। ১১৫২ জনবলের মধ্যে ৫০ শতাংশ পেয়েছি।

আনুষ্ঠানিকভাবে জিএমপির কার্যক্রম শুরুর আগে প্রয়োজনীয় জনবল, অস্ত্র-গোলাবারুদ ও গাড়ি পেয়ে যাবেন বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

জিএমপির নতুন থানা ও এর অধিভুক্ত এলাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। এর আওতাধীন আটটি নতুন থানা হলো সদর (বর্তমান জয়দেবপুর থানা), বাসন, কোনাবাড়ি, কাশিমপুর, গাছা, পূবাইল, টঙ্গী পূর্ব ও টঙ্গী পশ্চিম থানা।

(১) সদর থানা- (বর্তমান জয়দেবপুর থানা)- এর অধিভুক্ত সিটির ওয়ার্ডগুলো হলো-১৯, ২৩, ২৪, ২৫, ২৬, ২৭, ২৮, ২৯, ৩০ ও ৩১ নং ওয়ার্ড।

(২) বাসন থানা (ভোগড়া বাইপাস)-এর অধিভ’ক্ত ওয়ার্ড হলো- ১৩, ১৪, ১৫, ১৬, ১৭, ১৮, ২০, ২১ ও ২২নং ওয়ার্ড।

(৩) কোনাবাড়ি থানা (কোনাবাড়ি)-এর অধিভ’ক্ত ওয়ার্ডগুলো হল-৭, ৮, ৯, ১০, ১১ ও ১২নং ওয়ার্ড।

(৪) কাশিমপুর থানা (সারদাগঞ্জ পুকুর পাড়)-এর অধিভূক্ত ওয়ার্ডগুলো হলো- ১, ২, ৩, ৪, ৫ ও ৬নং ওয়ার্ড।

(৫) গাছা থানা (মালেকের বাড়ি)-এর অধিভ’ক্ত ওয়ার্ডগুলো হলো-৩২, ৩৩, ৩৪, ৩৫,৩৬, ৩৭ ও ৩৮ নং ওয়ার্ড।

(৬) পূবাইল থানা ( মীরের বাজার রেলক্রসিং সংলগ্ন)-এর অধিভ’ক্ত ওয়ার্ডগুলো হলো- ৩৯, ৪০, ৪১ ও ৪২ নং ওয়ার্ড।

(৭) টঙ্গী পূর্ব থানা (বর্তমান টঙ্গী থানা)-এর অধিভ’ক্ত ওয়ার্ডগুলো হলো-৪৩, ৪৪, ৪৫, ৪৬, ৪৭ নং ওয়ার্ড (শালিক চুড়া পূর্ণ ও গাজীপুরা পূর্ণ),৪৮,৪৯, ৫০ (আংশিক), ৫৫ (আংশিক), ৫৬, ও ৫৭ (আংশিক) নং ওয়ার্ড এবং

(৮) টঙ্গী পশ্চিম থানা (খাঁপাড়া রোড)- সিটির ৫০ (আংশিক), ৫১, ৫২, ৫৩, ৫৪, ৫৫ (আংশিক) ও ৫৭ (আংশিক) নং ওয়ার্ড।

জিএমপি কমিশনার বলেছেন, ইতোমধ্যে এসব থানায় কর্মকর্তা-জনবল নিয়োগ পেয়েছেন এবং তাদের অনুকুলে মোবাইল ফোন নাম্বারও বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। থানাগুলো উদ্বোধনের পর এলাকাবাসীকে প্রয়োজনীয় পুলিশি সেবা গ্রহণের জন্য স্ব-স্ব অধিক্ষেত্রভুক্ত থানায় যোগাযোগ করার অনুরোধ জানিয়েছেন তিনি।

তিনি আরো বলেন, মহানগরীতে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে মাদক নির্মূল, ট্রাফিক পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ, জঙ্গীবাদ যাতে মাথা চাড়া দিতে না পারে তার জন্য সক্রিয় ভুমিকা, আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি ঠিক রাখা (বিশেষ করে সামনের নির্বাচনে) এবং অপরাধ দমনে অন্যান্য নিয়মিত পুলিশিং কার্যক্রম চালানো হবে।

আট বিভাগীয় সদরদপ্তরের মধ্যে রংপুর ছাড়া বাকি সাতটিতে মহানগর পুলিশ রয়েছে। এছাড়া বিভাগীয় শহরের বাইরে নারায়ণগঞ্জ ও কুমিল্লা সিটি করপোরেশনে মহানগর পুলিশ নেই।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author