Main Menu

খালেদাজিয়ার উপদেষ্টা হাবিবের বিরুদ্ধে ঝাঁটা মিছিল ও কুশপুত্তলিকা দাহ, অবাঞ্চিত ঘোষনা আগামি ২৪ ঘন্টার মধ্যে নিঃশর্ত ক্ষমা চাইতে আল্টিমেটাম বিএনপি নেতাদের

ঈশ্বরদী ॥ বেগম খালেদা জিয়া ও জাকারিয়া পিন্টুর মুক্তি এবং ঈশ্বরদী পৌর ও উপজেলা বিএনপির কমিটি বাতিলের প্রতিবাদে ঈশ্বরদীতে বিক্ষোভ প্রতিবাদ ও ঝাঁটা মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিএনপির কেন্দ্রিয় নেতা হাবিবুর রহমান হাবিব কর্তৃক তৃণমূল বিএনপি নেতাকর্মীদের নিকট নিঃশর্ত ক্ষমা না চাওয়ার প্রতিবাদে শনিবার বিকেলে এসব কর্মসুচি পালন করা হয়। সদ্যবিলুপ্ত ঈশ্বরদী উপজেলা বিএনপি ও পৌর বিএনপির অঙ্গসংগঠনের পক্ষ থেকে যৌথভাবে এসব কর্মসুচি পালন করা হয়। বিকেলে বিএনপি কেন্দ্রিয় কমিটির সদস্য ও সাবেক এমপি সিরাজুল ইসলাম সরদার,উপজেলা বিএনপির সভাপতি শামসুদ্দিন আহমেদ মালিথা ও পৌর বিএনপির সভাপতি আকবর আলী বিশ্বাসের নেতৃত্বে রেলগেট বাস টার্মিনাল থেকে একটি বিশাল বিক্ষোভ প্রতিবাদ ও ঝাঁটা মিছিল বের করা হয়। মিছিলে বেগম খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা ও পাবনা-৪ আসনের বিএনপির প্রার্থী হাবিবুর রহমানের হাবিবের কুশপুত্তলিকা বহণ করা হয় । শহর প্রদক্ষিণ শেষে পুরাতন বাসস্ট্যান্ডে গিয়ে মিছিলটি শেষ হয়। সেখানে উত্তেজিত বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা হাবিবের কুশপুত্তলিকা ঝাঁটা পিটিয়ে অগ্নিদাহ করেন। পরে মাহাবুব আহমেদ স্মৃতি মঞ্চে¡ অনুষ্ঠিত হয় প্রতিবাদ পথসভা। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন, সাবেক এমপি সিরাজুল ইসলাম সরদার। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন, উপজেলা বিএনপির সভাপতি শামসুদ্দিন আহমেদ মালিথা। পৌর বিএনপির সভাপতি আকবর আলী বিশ্বাসের সভাপতিতে¦ অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন,পৌর কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন জনি ও বিএনপি নেতা ইসলাম হোসেন জুয়েল। বক্তারা অভিযোগ করে বলেন, হাবিবুর রহমান হাবিবকে বলা হয়েছিল বিএনপি নেতা সেন্টু সরদারসহ অনেকের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা প্রত্যাহার করতে হবে। খুনীদের সঙ্গ ছাড়তে হবে। মুলাডুলির বিএনপি নেতার হত্যাকারীকে সিপাহ সালার করে সাথে নিয়ে না ঘুরতে এবং রুপপুরের মার্ডার কেসের আসামি ও যারা বিএনপি করেন না তাদের নিয়ে চলাফেরা না করতে। এসব করার পরও আমরা তাকে বিএনপি নেতাদের কাছে নিঃশর্ত ক্ষমা চাইতে বলেছিলাম। কিন্ত তিনি সেটি না করে উল্টো বিএনপির কমিটি বিলুপ্ত করে প্রতিশোধ নিয়েছেন। বক্তারা আরও বলেন, হাবিব বিএনপিতে যোগদানের পরে কখনও বিএনপিতে ভোট দেননি। তিনি বিএনপিতে থেকে নৌকার পক্ষে কাজ করেছেন। এখনও কাজ করে যাচ্ছেন। তিনবার ধানের শীষে ভোট না দিয়ে নৌকায় ভোট দিয়েছেন । তার পরও বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির স্বার্থে তাকে সুযোগ দিচ্ছি এবং আমরাও ধানের শীষে নির্বাচন করতে প্রস্তুত আছি ,তবে তিনি যদি আগামি ২৪ ঘন্টার মধ্যে বিলুপ্তকৃত কমিটি পূণর্বহাল করেন এবং পৌর ও উপজেলা কমিটির নেতাকর্মীসহ সকল নেতাকর্মীদের কাছে নিঃশর্ত ক্ষমা চেয়ে নেন। সভায় হাবিবকে এহেন সংগঠন বিরোধী কাজের জন্য অবাঞ্চিত ঘোষনা করা হয়