ঈশ্বরদীতে আওয়ামী লীগ নেতা ও মুক্তিযোদ্ধা মোস্তাফিজুর রহমান সেলিম আততায়ীর গুলিতে নিহত

ঈশ্বরদী (পাবনা) সংবাদদাতাঃ
ঈশ্বরদীর পাকশী এলাকার প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা ও মুক্তিযোদ্ধা মোস্তাফিজুর রহমান সেলিম আততায়ীর ছোঁড়া গুলিতে গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হয়েছেন। ঈশ্বরদী হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক ডাঃ শফিকুল ইসলাম শামীম নিহত হওয়ার ঘটনা নিশ্চিত করে জানান, রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার সময় বুধবার রাত ১০.২৫ মিনিটের সময় ঈশ্বরদী শহরের পোষ্ট অফিস মোড় এলাকায় এ্যাম্বুলেন্সের মধ্যেই তাঁর প্রাণ বায়ু বেরিয়ে যায়।
প্রতিবেশী হাফিজুর রহমান জানান, রাত ৯ টার দিকে পাকশীর রূপপুরের বিবিসি বাজার হতে নিজ বাড়িতে ঢোকার মূহুর্তে অন্ধকারে পূর্ব হতে ওঁত পেতে থাকা আততায়ীরা গুলি বর্ষণ করে দ্রুত পালিয়ে যায়। গুরুতর আহত অবস্থায় মুক্তিযোদ্ধা সেলিমকে তাৎক্ষণিকভাবে প্রায় ৯ কিলোমিটার দূরে ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে পাঠানো হয় বলে তিনি জানান।
ডাঃ শামীম জানান, তাঁর পেটে দুটি গুলি লেগেছিল এবং প্রচুর রক্তক্ষরণ হচ্ছিল। প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে আশংকাজনক অবস্থায় দ্রুত রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হয়।
মুক্তিযোদ্ধা সেলিম গুলিবিদ্ধ হওয়ার খবর দ্রুত ছড়িয়ে পড়লে এলাকার এবং ঈশ্বরদীর শত শত মানুষ তাঁর বাড়িতে এবং ঈশ্বরদী হাসপাতালে এসে সমাবেত হয়। এসময় এলাকাবাসীরা তাঁর বাড়ির সামনে হতে তিনটি গুলির খোসা উদ্ধার করেছে।
মুক্তিযোদ্ধা ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি গোলাম মোস্তফা চান্না মন্ডল এই হত্যাকান্ডের তীব্র নিন্দা ও দোষীদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবী জানিয়ে বলেন, মোস্তাফিজুর রহমান সেলিম আওয়ামী লীগের ঈশ্বরদী উপজেলা কমিটি সদস্য এবং পাকশী ইউনিয়ন আওযামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।
ঈশ্বরদী থানা পুলিশ মুক্তিযোদ্ধা সেলিমের গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হওয়ার ঘটনা নিশ্চিত করে জানান, আততায়ীদের দ্রুত গ্রেফতার করা হবে। তবে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত হত্যাকান্ডের কোন কারণ জানা যায়নি। পাকশীর রূপপুর বিবিসি বাজার এলাকায় থমথমে পরিবেশ বিরাজ করছে ।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author