রেলওয়ে বিভাগীয় অফিস এলাকায় সমাবেশ ও মানব বন্ধন রেলওয়ের দেড়শ বছরের ঐতিহ্য ও পাকশীর অস্তিত্ব রক্ষায় কয়েক হাজার পাকশীবাসী ফুঁসে উঠেছে

স্টাফ রিপোর্টার,ঈশ্বরদী ॥ রেলওয়ের দেড়শ বছরের ঐতিহ্য ও পাকশীর অস্তিত্ব রক্ষায় হাজার হাজার পাকশীবাসী ফুঁসে উঠেছে। শনিবার সকালে পাকশী রক্ষা কমিটির ডাকে সাড়া দিয়ে কয়েক হাজার নারী,পুরুষ ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা রেলওয়ে বিভাগীয় অফিস এলাকায় সমাবেশ ও মানব বন্ধন করে। প্রায় দু’ঘন্টাব্যাপি অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে আওয়ামীলীগ নেতা ও মুক্তিযোদ্ধা এম.রশিদউল্লাহ,হাবিবুল ইসলাম,জাসদ নেতা জাহাঙ্গীর আলম ও অধ্যাপক আবুল কালাম আজাদ বক্তব্য দেন। বক্তারা মুক্তিযুদ্ধ ও ব্রিটিশের ইতিহাস ঐতিহ্য রক্ষায় পাকশী রেলওয়ের আবাসিক এলাকা ও গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা উচ্ছেদ না করার জন্য প্রধান মন্ত্রীর নিকট আবেদন করেন। বিভিন্ন বিভাগের উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের পাকশীতে আসার সংবাদ পেয়ে স্মারকলিপি দেওয়ার জন্য পাকশী রক্ষা কমিটি এ সমাবেশ-মানববন্ধনের আয়োজন করে। রেলওয়ে ও বিজ্ঞান মন্ত্রনালয়ের উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের মধ্যে রেলওয়ে গেস্ট হাউজে প্রায় দু’ঘন্টাব্যাপি রুদ্ধদার বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এসময় রেলপথ মন্ত্রনালয়ের সচিব মোফাজ্জল হোসেন,রেলওয়ের মহাপরিচালক আলহাজ্ব কাজী রফিকুল ইসলাম ও পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের মহাব্যবস্থাপক খোন্দকার শহিদুল ইসলাম,জেডিজি এএফএম মাসুদুর রহমান,পাকশীর ডিআরএম নাজমুল ইসলাম,বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রনালয়ের অতিরিক্ত সচিব ইতিরাণী পোদ্দার,রুপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রুহুল কুদ্দুসসহ সংশ্লিষ্ট বিভাগের উর্দ্ধতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। রুপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের নিরাত্তার বেইজমেন্ট তৈরীর জন্য রেলওয়ের কি পরিমাণ অপ্রয়োজনীয় ও পরিত্যক্ত জমি বিজ্ঞান মন্ত্রনালয়কে প্রদান করা যাবে তার সম্ভাব্যতা যাচাই এবং সরেজমিনে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার লক্ষে তারা পাকশীতে আসেন এবং সরেজমিন ঘুরে দেখেন।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author