Main Menu

করণ জোহরের ‌‘হাতের পুতুল’ আলিয়া!

বলিউড পরিচালক করণ জোহরের ‌‘হাতের পুতুল’ ছাড়া আলিয়া ভাটের আর কোনও অস্তিত্ব আছে নেই বলে মনে করেন মনিকর্ণিকা অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াত। সম্প্রতি পিঙ্কভিলাকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এসব কথা বলে কঙ্গনা রানাওয়াত।

তিনি বলেন, আলিয়াকে তিনি উপদেশ দেবেন ‘মেরুদণ্ড শক্ত করে উইমেন এম্পাওয়ারমেন্ট এবং জাতীয়তাবাদী কোনো দৃঢ় চরিত্রে অভিনয় করে দেখাতে।

সাক্ষাৎকার চলাকালীন কঙ্গনা আরও বলেন, আশা করি আলিয়া সাফল্যের প্রকৃত অর্থ জানে। আমি ওকে বলেছি ও যদি নিজের কোনও বক্তব্য না রেখে শুধু পয়সা রোজগারের পেছনে ছোটে তাহলে তার সাফল্যের কোনও মূল্যই নেই। আশা করি সাফল্যের প্রকৃত অর্থ এবং নিজের দায়িত্ব সম্পর্কে আলিয়া অবগত। তাই নেপোটিজম থেকে বেরিয়ে ও আরও উপরে উঠবে সেই কামনা করি।

কঙ্গনা বলেছিলেন, বলিউড তারকারা তার বিরুদ্ধে ক্লাসরুমের ছেলেমেয়েদের মতো একত্রিত হয়ে তাকে বয়কট করছে যেহেতু তিনি নেপোটিজমের বিরুদ্ধে কথা বলেন।

এরপর আলিয়া সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে জানিয়েছিলেন, কঙ্গনাকে নিয়ে তার কোনও সমস্যা নেই। কঙ্গনাকে তিনি অপছন্দ করেন না এবং কঙ্গনাও তাকে অপছন্দ করেন বলে তার মনে হয় না। যদি তার অজান্তেই তার কোনও আচরণে কঙ্গনার খারাপ লাগে তবে তিনি কঙ্গনার কাছে ব্যক্তিগতভাবে ক্ষমা চাইতেও রাজি।

বৃহস্পতিবার মনিকর্ণিকার একটা প্রমোশনে বলিউড তারকারা ছবিটির প্রচারে কঙ্গনার পাশে না দাঁড়ানোর অভিযোগ তুলে অভিনেত্রী বলেন, ঝাঁসির রানী কি আমার আত্মীয়? তিনি যতটা আমার, ততটাই সবার। তাহলে সবাই কেন সঙ্কোচ করছে? আমি নেপোটিজমের বিরুদ্ধে কথা বলি বলেই কি সবাই আমার বিরুদ্ধে ক্লাসরুমের ছেলেমেয়েদের মতো একত্রিত হয়ে আমাকে বয়কট করছে? সবাই কি ভয় পাচ্ছে?

২০১৬ সালে কফি উইথ করণের একটা এপিসোডে করণ জোহরকে কঙ্গনা ‘নেপোটিজমের পথপ্রদর্শক’ বলে চিহ্নিত করার পর থেকেই এই নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়।

‘মনিকর্ণিকা: দ্য কুইন অব ঝাঁসি’ ছবিতে রানী লক্ষ্মী বাঈয়ের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন কঙ্গনা রানাওয়াত। অঙ্কিতা লোখাণ্ডে, অতুল কুলকার্নি, যীশু সেনগুপ্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকায় এই ছবিতে অভিনয় করেছেন। মুক্তির পর দুই সপ্তাহে ছবিটি ৮৪.৫৫ কোটি টাকা আয় করেছে।