২২ ফেব্রুয়ারী শুভ মুক্তি। দর্শকদের মন জয় করতে “অন্ধকার জগত”

মোবারক বিশ্বাস ঃ একজন ক্ষুধার্থ সন্তানের ক্ষুধা নিবারনের জন্য রুটি আনতে গিয়ে বাবার করুন মৃত্যু হয়। মৃত্যুর পর, ছদ্মবেশি মুখোশের অন্তরালে সুলতান বাবা খ্যাত গড ফাদারের জালে আটকায় নায়ক ডিএ তায়েব ও আলেকজান্ডার বো। সুলতান বাবা তাদের লালন পালনের নামে হাতে তুলে দেয় অস্ত্র। হয়ে যায় অন্ধকার জগতের ডন। এমনি একটি গল্প নিয়ে তৈরী হয়েছে অন্ধকার জগত। ঢাকাইয়া সিনেমা (ঢালিউড) শিল্প যখন মুখ থুবড়ে পড়তে শুরু করেছে। অনেক নামী দামী ষ্টারদের মধ্যে হতাশা দেখা দিয়েছে, ঠিক সেই সময়ে এ শিল্পকে টিকিয়ে রাখতে হাল ধরেছেন চিত্রনায়ক ডিএ তায়েব। এসজি প্রোডাকশনের ব্যানারে নির্মিত এ্যাকশন মুভি অন্ধকার জগত। গত ১৬ই ফেব্রুয়ারী এটিএন বাংলার ৮নং ফ্লোরে, ছবিটির প্রিমিয়ার শো অনুষ্ঠিত হয়ে গেল। সেখানে বর্তমান ঢালিউডের সুপার ষ্টার শাকিব খান ছবির কিছু অংশ দেখে উচ্ছাসিত প্রশংসা করে বললেন বদিউল আলম খোকন ভাই এর ছবি মানেই ব্যবসা সফল ছবি। আর ডিএ তায়েব একজন উর্দ্বতন পুলিশ কর্মকর্তা। তার বিগত দিনের ছবি গুলো প্রসংশার দাবিদার। অন্ধকার জগৎ ছবিটি অবশ্যয় দর্শকের চাহিদা পুরণ করবে এবং ছবি ব্যবসা সফল হবে। ছবির গল্প ও চিত্রায়ন সেই সাথে ডিএ তায়েব ও মাহিয়া মাহি জুটির এ্যাকশন ধর্মী বাণিজ্যিক ছবি দর্শকের চাহিদা পুরন করতে সক্ষম হবে। ছবিতে আরো অভিনয় করেছেন, আলেক জান্ডার বো, মৌমিতা মৌ, মিশা সওদাগর ও পাবনার কাজ পাগল অভিনয় শিল্পি যুবরাজ। একটি বিশেষ চরিত্রে পাবনার এই প্রতিভাবান শিল্পি যুবরাজকে দেখা যাবে। প্রিমিয়ার শো’র অনুষ্ঠানে পুলিশের ডিআইজি হাবিবুর রহমান এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, এটিএন বাংলা ও এটিএন নিউজের চেয়ারম্যান ড. মাহফুজুর রহমান। তিনি তার বক্তব্যে বলেন খুব সুন্দর একটি কাহিনী নিয়ে ছবিটি তৈরী করা হয়েছে। ছবিতে যে এ্যাকশন দেখানো হয়েছে, সেগুলো বলিউড, হলিউডের চেয়ে কম না। তিনি ডি এ তায়েবের উচ্ছাসিত প্রসংশা করে বলেন, ডিএ তায়েবের টিমটি যদি বলিউডের কোন পরিচালক এর হাতে অন্ধকার জগত ছবি তৈরী হত তাহলে সেটা হলিউড বলিউডের মত বক্স্র অফিস কাপানো একটি ছবি হতো। তিনি ছবিটির প্রিমিয়ার শো দেখার অভিজ্ঞতা বর্ননা করতে গিয়ে বলেন, যখন কোন ছবির কাহীনি ভাল লাগে তখন এর শেষ দেখতে ইচ্ছে করে। তিনি আরো বলেন, ছবি দেখতে গিয়ে এর গল্প যেভাবে সাজানো হয়েছে, তাতে ছবি শেষ না হওয়া পর্যন্ত দর্শকরা হলের বাইরে যেতে চাইবে না। ছবির এ্যাকশন, ডাইলোগ ও গল্প’র প্রশংসাও তিনি করেন। বিশেষ করে গল্পকার কমল সরকারকে, ভাল গল্প লেখার জন্য ধন্যবাদ দেন। গল্পকারের গল্পটিকে শৈল্পিক সাজে সাজিয়ে তুলতে পরিচালক যে আপ্রান চেষ্টা ছিল তাও তিনি তুলে ধরেন। তিনি গল্পকার, পরিচালক, নায়ক-নায়িকা ও অভিনয় শিল্পিদের শ্রমকে সার্থক করে তুলতে দর্শকদের ছবিটি দেখার অনুরোধ করেন। তিনি আশা প্রকাশ করেন ছবিটি দর্শকদের মনজয় করবে। ছবির নায়ক ডিএ তায়েব হলে গিয়ে ছবিটি দেখার জন্য দর্শকদের অনুরোধ করেন। কারন দর্শকদের অনুপ্রেরনায় এ শিল্পকে বিশ্বের দরবারে বাংলাদশেকে পরিচিত করে তুলতে সাহায্য করবে। মুখ থুবরে পড়া এ শিল্প আবার গতীশিল হবে। ঢালিউড ফিরে পাবে প্রানচাঞ্চল্য। তিনি আবারও দর্শকদের হলে গিয়ে এ ছবি দেখার অনুরোধ করেন। আরো উপস্থিত ছিলেন, কিং খান শাকিব খান, ছবির প্রযোজক মাহবুবা শাহরিন, এটিএন বাংলার সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট ও অন্ধকার জগত ছবির গায়ক তাশিক আহম্মেদ, চিত্রনায়ক বাসেদ শিমন ও পাবনার গর্ব যুবরাজসহ অভিনয় শিল্পিরা। ছবির গল্পে, অন্ধকার জগত থেকে আলোয় ফিরে আসার অনেক ভাল ভাল ম্যাসেজ রয়েছে, যা দর্শকদের মন জয় করবে। ছবির গানের দৃশ্য দেশের বাইরে চিত্রায়ন করা হয়েছে এবং ছবির দৃশ্য দেশের বিভিন্ন দর্শনীয় স্থানে চিত্রায়ন করা হয়েছে। ছবিটি আগামী ২২ ফেব্রুয়ারী ঢাকাসহ সকল জেলায় একযোগে মুক্তিপাবে।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author