Main Menu

সুজানগরে ময়না তদন্তের জন্য ১৩ দিন পর কবর থেকে লাশ উত্তোলন

সুজানগর (পাবনা) প্রতিনিধি:

পাবনার সুজানগরে রোববার বিকেলে ময়না তদন্তের জন্য তাঁতীবন্দ ইউনিয়নের ক্রোড়দুলিয়া গ্রামের ফয়েজ উদ্দিনের মেয়ে নাছিমা খাতুন (৩৭) নামে স্বামী পরিত্যক্তা মহিলার মৃত্যুর ১৩ দিন পর কবর থেকে লাশ উত্তোলন করেছে সুজানগর থানা পুলিশ। সুজানগর থানার অফিসার ইনর্চাজ (তদন্ত) অরবিন্দ সরকার জানান, স্থানীয় কামারদুলিয়ায় অবস্থিত এইচ এম এফ ইটভাটায় শ্রমিকদের রান্নার কাজ করত সে। ইট ভাটার শ্রমিকদের সাথে অবৈধ্য মেলামেশা করলে সে অন্তঃসত্ত্বা হয়, এ ঘটনা জানা জানি হলে ১৬ মার্চ জড়িতরা পাবনা সদর হাসপাতালে নাসিমা কে জোরপূর্বক গর্ভপাত ঘটাতে গিলে সে মারা যায়। এবং অজ্ঞাত কারণে কোন প্রকার মামলা ছাড়া তাকে দাফন করা হয়। এ ঘটনার পর নাসিমার ভাই রায়হান উদ্দিন বাদী হয়ে মৃত্যুর ৩ দিন পর সুজানগর থানায় একটি মামলা দায়ের করে। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এস আই রেজাউল করিম আকন্দ ময়না তদন্তের জন্য কবর থেকে লাশ উত্তোলনের জন্য পাবনার বিজ্ঞ আদালতে আবেদন করেন। বিজ্ঞ আদালত লাশ উত্তোলনের অনুমতি দিলে, রোববার বিকেলে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রানুয়ারা খাতুন এবং সুজানগর থানা পুলিশ সহ স্থানীয়দের উপস্থিতে কবরস্থান থেকে লাশ উত্তোলন করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করে।