Main Menu

বড় জয়ে বিশ্বকাপ মিশন শুরু ইংল্যান্ডের

বেন স্টোকসের অলরাউন্ড নৈপুণ্যে বড় জয়ে বিশ্বকাপে নিজেদের মিশন ‍শুরু করল ইংল্যান্ড। উদ্বোধনী দিনের একমাত্র ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ১০৪ রানের বিশাল ব্যবধানে জয় পেয়েছে স্বাগতিকরা। চার হাফসেঞ্চুরিতে ৩১১ রান তুলেছিল শুরুতে ব্যাট করা ইংল্যান্ড। জবাবে ৬১ বল বাকি থাকতেই দক্ষিণ আফ্রিকার ইনিংস গুটিয়ে যায় মাত্র ২০৭ রানে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে ম্যাচে টস ভাগ্যে জিতেছিলেন প্রোটিয়া অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসিসই। তবে স্বাগতিকদেরই আগে ব্যাট হাতে নামার আমন্ত্রণ জানান তিনি। ইমরান তাহির প্রথম ওভারের দ্বিতীয় বলেই জনি বেয়ারস্টোকে ফিরিয়ে সেই সিদ্ধান্তের স্বার্থকতাও যেন প্রমাণ করছিলেন।

তবে সম্মিলিত পারফরমেন্সের কারণে শেষ পর্যন্ত বড় স্কোর গড়া থেকে ইংলিশদের বিরত রাখতে পারেনি প্রোটিয়া বোলাররা। দলটির পক্ষে চারজন ব্যাটসম্যান হাফসেঞ্চুরি করেন। এর মধ্যে ৭৯ বল থেকে সর্বোচ্চ ৮৯ রান করেন বেন স্টোকস। এছাড়া ইয়ান মরগান ৫৭, জেসন রয় ৫৪ ও জো রুট করেন ৫১ রান।

প্রোটিয়া বোলারদের মধ্যে লুঙ্গি এনগিডি সর্বোচ্চ তিনটি এবং কাগিসো রাবাদা ও ইমরান তাহির দুটি করে উইকেট নেন।

জবাব দিতে নেমে শুরু থেকেই চাপে ছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। চোটের কারণে মাঠের হাশিম আমলার মাঠের বাইরে চলে যাওয়া থেকেই চাপের সূচনা। এরপর টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানরা ফাঁকে ফাঁকে উইকেট বিলিয়ে মাঠ ছাড়তে থাকেন। ব্যতিক্রম কেবল কুইন্টন ডি কক ও ভেন দার দুসেন। ডি কক ৬৮ ও দুসেন ৫০ রান করে আউট হয়েছেন।

হাশিম আমলা সুস্থ্য হয়ে শেষ দিকে মাঠে ফিরলেও ব্যাট হাতে জ্বলে উঠতে পারেননি। তাই ১৯৩ রানে অষ্টম ব্যাটসম্যান হিসেবে যখন আমলা আউট হন তখন পরাজয় অনেকটাই নিশ্চিত হয়ে যায়। শুধু বাকি থাকে আনুষ্ঠানিকতা। কাগিসো রাবাদা ও ইমরান তাহিরের উইকেট তুলে নিয়ে সেই আনুষ্ঠানিকতা শেষ করতে ইংলিশ বোলারদের খরচা করতে হয় আর ১৪ রান।

ইংলিশ বোলারদের মধ্যে জোফ্রা আর্চার সর্বোচ্চ তিনটি এবং লায়াম প্লাঙ্কেট ও বেন স্টোকস দুটি করে উইকেট নেন। ব্যাট হাতে ৮৯ ও বল হাতে দুই উইকেট নিয়ে ম্যাচসেরা হয়েছেন স্টোকস।

বিশ্বকাপে আগামীকাল শুক্রবার একটি ম্যাচ রয়েছে। বাংলাদেশ সময় বিকেল সাড়ে ৩টায় নটিংহ্যামে সেই ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের মুখোমুখি হবে পাকিস্তান।