Main Menu

ভাঙ্গুড়ায় প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে কৃষকের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিনিধি:পাবনার ভাঙ্গুড়ায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে আবুল কালাম (৫০) নামে এক ব্যক্তিকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন। আজ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১১টায় পাবনা সদর হাসাপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। আবুল কালাম উপজেলার প্রত্যন্ত খানমরিচ ইউনিয়নের চাদপুর গ্রামের মৃত গোলাপ হোসেনের পুত্র ।তিনি পেশায় একজন কৃষক।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, মঙ্গলবার সকাল সাতটার দিকে উপজেলার চাদপুর গ্রামে আবুল কালামের জমিতে একই গ্রামের সাইফুল ইসলামের একটি গরু প্রবেশ করে পাট ক্ষেত নষ্ট করে। পরে আবুল কালামের ছেলে আবুল বাশার গরুটিকে ক্ষেত থেকে নিয়ে এসে তাদের বাড়িতে আটকে রাখে। সাইফুল ওই গ্রামের আব্দুল সরদারের ছেলে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে সকাল আটটার দিকে ছুরি ও লাঠিসোঠা সহ সাইফুল দলবল নিয়ে আবুল কালামের বাড়িতে হামলা চালায়। একপর্যায়ে সাইফুল ছুরি দিয়ে আবুল কালামের পেটে আঘাত করে। মুমূর্ষু অবস্থায় এলাকাবাসী তাকে উদ্ধার করে ভাঙ্গুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তখনই তাকে পাবনা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সকাল সাড়ে ১১টার দিকে আবুল কালাম মারা যান।

খানমরিচ ইউপি চেয়ারম্যান আছাদুর রহমান জানান, সাইফুল একজন দাঙ্গাবাজ প্রকৃতির লোক। সে সামান্য কারণে একজন নিরীহ মানুষকে হত্যা করেছে। এর সুষ্ঠু বিচার হওয়া দরকার।

ভাঙ্গুড়া থানার ডিউটি অফিসার এএসআই সেলিম হোসেন জানান, হত্যার বিষয়টি খানমরিচ ইউপি চেয়ারম্যান আছাদুর রহমান থানায় জানিয়েছেন। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শনে গিয়েছেন। লিখিত অভিযোগ পাওয়ার পর আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।



Comments are Closed