Main Menu

ঈশ্বরদীর দু’টি অন্যতম প্রধান পাকা সড়ক চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে

ঈশ্বরদীর সাঁড়া পদ্মা নদীর নিকটস্থ মাজদিয়া ইসলাম পাড়া,পাল পাড়া,পানহাটা ও ধাপাড়ি এলাকা অত্যন্ত ঘনবসতি পূর্ণ এলাকা। এ এলাকায় স্কুল,মসজিদ,মাদ্রাসাসহ বিভিন্ন প্রকার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। এলাকার দু’টি অন্যতম প্রধান পাকা সড়ক হলো মাজদিয়া মজিদের মোড় থেকে ইসলাম পাড়া পদ্মা নদীর ঘাট পর্যন্ত ১২’শ মিটার ও চানমারী থেকে ভাদুর বটতলা পাকা সড়কের চানমারী অংশের ৪’শ মিটার পাকা সড়কটি দীর্ঘদিন থেকে চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে। মাঝে মধ্যেই নানা প্রকার দূর্ঘটনা ঘটে এলাকাবাসীদের ক্ষতির শিকার হতে হচ্ছে। কোন প্রকার যানবাহন ঐসব সড়কে চলাচল করতে নারাজ। কারণ ঐ সব সড়কে যানবাহন চালানো হলে যানবাহনের টায়ার টিউব ও বিভিন্ন যন্ত্রাংশ খুব সহজেই নষ্ট হয়ে যায়। আবার সামান্য কারণেই পড়তে হয় চালক ও যাত্রীদের দূর্ঘটনার কবলে। এ সব কারণে যানবাহন চালকরা ত্রিশ টাকার ভাড়া এক’শ টাকা হেঁকে বসেন। এ জন্য অনেককে যানবাহনের পরিবর্তে হেঁটে চলাচল করতে হয়। কিন্ত বিধি বাম ! হেঁটে চলতে গিয়েও অনেককে হোঁচট গেয়ে আহত হতে হয়েছে এবং হচ্ছে। দিনের বেলাতেই কাউকে কাউকে বাই সাইকেল নিয়েও উল্টে পড়তে হয়। আর রাতের বেলাতে নিশ্চিত উল্টে পড়ার বিষয়টি মাথায় নিয়েই বাধ্য হয়ে চলাচল করতে হচ্ছে। গত কয়েক দিন আগে ইসলাম পাড়ার মোক্তার হোসেন বাই সাইকেল নিয়ে উল্টে পড়ে আহত হন এবং গাফ্ফারকে হোঁচট খেয়ে আহত হতে হয়েছে। এলাকাবাসীদের অভিযোগ,পদ্মা নদীতে গাইড বাধ নির্মাণের সময় প্রায় এক বছর আগে পাথরবাহী অতিরিক্ত ওজনের ট্রাক,ট্রাক্টর চলাচল করে সড়ক দু’টি চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়ে। সে সময় এলাকাবাসী সড়কটি মেরামতের দাবী করলে বাধ নির্মাণ কাজ শেষে সমড়কটি মেরামত করে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেওয়া হলেও আজ অবধি তা করা হয়নি। চানমারী অংশের ৪’শ মিটার পাকা সড়কটিতে কার্ফেটিং কাজ করার এক মাসের মধ্যে তা উঠে যায় বিটুমিন কম দেওয়ায়। এর পর মালবাহী ট্রাক-ট্রাক্টর চলাচলের কারণে বর্তমানে খানাখন্দের সৃষ্টি হয়েছে। এলাকাসীর অভিযোগ,এলাকায় যে হাজার হাজার মানুষ ও শিক্ষার্থী বসবাস এবং চলাচল করে তা হয়ত সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ ভুলেই গেছেন। তা না হলে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ পাকা সড়ক দু’টি অনেক আগেই মেরামত করে এলাকাবাসীদের রক্ষা করতেন।
মাজদিয়া মজিদের মোড় থেকে ইসলাম পাড়া পদ্মা নদীর ঘাট পর্যন্ত ১২’শ মিটার ও চানমারী থেকে ভাদুর বটতলা পাকা সড়কের চানমারী অংশের ৪’শ মিটার পাকা সড়ক মেরামত সম্পর্কে ঈশ্বরদী উপজেলা প্রকৌশলী এনামুল কবীর বলেন, বালু ও পাথর ভর্তি অধিক পরিমাণে ড্রাম ট্রাক চলাচলের জন্য সড়ক দু’টি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এলজিইডির সাধারণ ডিজাইন অনুযায়ী সড়ক দু’টির মেরামত কাজ করলে টিকবেনা। তাই ২০১৯-২০ অর্থ বছরে
স্পেশাল ডিজাইন করে সড়ক দু’টি মেরামতের উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে।#