Main Menu

সুজানগরে বসতবাড়ী উচ্ছেদের ঘটনায় আহত ১ ॥ গ্রেফতার-১

পাবনার সুজানগর উপজেলার হাটখালী ইউনিয়নের শোলাকুড়া গ্রামের এক পরিবার কে বসতবাড়ী থেকে উচ্ছেদের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় সুজানগর থানায় আজিজুল হক মুন্সি বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছে। ভুক্তভোগি আজিজুল হক মুন্সি অভিযোগে জানান, শনিবার সকালে (২২শে জুন ১৯ইং) একই গ্রামের সানু খন্দকারের ছেলে নুরুল ইসলাম, গফুর মুন্সি ছেলে মামুন, মৃত ইউসুফ মুন্সির ছেলে ছরোয়ার, মৃত আবুল মুন্সির ছেলে গফুর, মাছুম মুন্সি স্ত্রী দিলারা খাতুন, গফুর মুন্সির স্ত্রী মমিনা খাতুন, আজিবর মুন্সি ছেলে রফিক, ইয়াজ উদ্দিনের ছেলে মুক্তার, রহিম বিশ্বাসের ছেলে সুমন সহ ধারালো অস্ত্র, লোহার রড, বাাঁশের লাঠি নিয়ে আমার বসতবাড়ীর থেকে জোরপূর্বক প্রভাবশালী ভূমি দস্যুরা একটি টিনের ঘর উচ্ছেদ করে, জমি দখলের চেস্টা করে। বাঁধা দেওয়ায় ধারলো অস্ত্র ও লাঠি দিয়ে সন্ত্রাসীরা বেধরক মারপিট করে আমার ছেলে শরিফুল কে গুরুতর আহত করে, ঘরে রক্ষিত স্বর্ণালংকার সহ প্রায় ৫৮ হাজার টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। ইতিপূর্বে দীর্ঘদিন যাবত বসতবাড়ী থেকে বেড় হওয়ার পথ বন্ধ করে দিয়েছে।

এ ঘটনায় আমার পরিবার নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। হামলায় আহত শরিফুল কে এলাকাবাসীরা উদ্ধার করে সুজানগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। প্রত্যক্ষদর্শী কামরুল ইসলাম বলেন অনেক দিন আগে থেকেই এই জমি নিয়ে কোন্দল চলছে, এর আগে এ জমির কোন্দলে ২০১৬ সালে পাবনার সিনিয়র সহকারী জর্জ আদালতে একটি মামলা হয়। জমি দখলের জন্য শরিফুলের বাড়ীর উপর দলবদ্ধ ভাবে হামলা চালিয়ে ভাংচুর ও মারপিট করে। একই গ্রামের সেকেন শেখ জানান আজিজুল হক মুন্সি তো মানবেতার জীবনযাবন করছে, তার বাড়ী থেকে যাতায়াতের জন্য একমাত্র রাস্তা ছিলো সেটাও বন্ধ করে দিলে, খালাখন্দ দিয়ে যাতায়াত করতে হচ্ছে। মনিরুল মুন্সি জানান আজিজুল হক মুন্সি দূর্বল প্রকৃতির লোক হওয়ায় এলাকার কতিপয় প্রভাবশালীরা এদের উপর অন্যায় অত্যাচার করছে। সুজানগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) অরবিন্দ সরকার বলেন এ ঘটনায় ১জন কে গ্রেফতার করা হয়েছে, অন্য আসামীদের গ্রেফতারের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।