Main Menu

সারাদিন কাজল ঠিক রাখতে যা করণীয়

নারীদের সাজের অন্যতম উপাদান হলো কাজল। এ কাজল নিয়ে বেশ কিছু গানও লেখা হয়েছে এ যাবত কালে।

কোথাও বের হতে হলে বা হালকা সাজের জন্য নারীরা আর কিছু পরুক না পরুক, কাজলটা পরা চাই চাই। তবে গরমে কাজল পরতে গেলে বিপত্তিতে পড়তে হয়। কারণ গরমে ঘেমে চোখের অবস্থা খারাপ হয়ে যায়।

সেক্ষেত্রে সারাদিন কাজল ঠিক রাখতে হলে কাজল পরার সময় যা করতে হবে-

> আপনার চোখ আপনার সব থেকে বড় সম্পদ। তাই কোনও সস্তার নিচু মানের কাজল ব্য়বহার করা যাবে না। ভালো মানের দামি কাজল কিনতে হবে।

>ঘুমানোর আগে অবশ্য়ই চোখ পরিষ্কার করে ধুয়ে নিতে হবে। কাজল পরা অবস্থায় ঘুমানো যাবেনা না। এতে চোখের পাতা, পাতলা ত্বক ক্ষতিগ্রস্থ হয়।

>রোজ রোজ কাজল পরা ঠিক না। মাঝে মাঝে বিরতি দিতে হবে। এতে চোখ ভাল থাকবে। লোমকূপের মুখ বন্ধ হবে না। চোখের ত্বক ভাল থাকলেই আরও সুন্দর থাকবে কাজল।

>কাজল পরার আগে অবশ্যই ভালো করে মুখ ধুয়ে নিতে হবে। ত্বক যেন পরিষ্কার ও শুকনো থাকে।

>কাজল পরার আগে চোখের পাশের অংশগুলিতে বিবি ক্রিম বা সিসি ক্রিম দিতে হবে। এতে ত্বকের অতিরিক্ত তেল ও আর্দ্রতা শুষে নেবে। ফলে কাজল ঘেঁটে যাবে না।

>ঘুম থেকে উঠে অনেক সময়ে চোখের চার পাশ ফুলে থাকে। তাই একটি নরম সুতির কাপড়ে এক টুকরো বরফ নিয়ে চোখের পাশে হালকা মাসাজ কর্তে হবে। ফোলা ভাব কমবে। ত্বকের তৈলাক্ত ভাবও দূর হবে।

>চোখের উপর ও নিচের অংশে ওয়াটার লাইন বলে একটি অংশ থাকে। সেই অংশে কাজল পরলে চোখ দেখায় বড় ও সুন্দর। কাজল পরার সময়ে সেই ওয়াটার লাইন-এ কাজল পরলে স্মাজ হবে না, চোখ সুন্দর থাকবে। কাজল পরার পর যদি খুব বেশি ভেজা ভাব থাকে তাহলে বাহিরে বের হবার আগে কাজল শুকিয়ে যাওয়া অবধি অপেক্ষা করতে হবে।

>বাজারে অনেক সংস্থার ওয়াটার প্রুফ আইলাইনার পাওয়া যায়। কাজল পরার পর হালকা হাতে আইলাইনার পরে নিন। অনেক অভিজ্ঞ মেক আপ শিল্পী এই পদ্ধতি ব্যবহার করে থাকেন। আইলাইনার কাজল ধরে রাখে। এতে কাজল ছড়াবে না।

>কাজল পরার পর অকারণে মুখে হাত দেয়া যাবে না। খুব প্রয়োজন হলে আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে শুকনো টিস্যু ব্যবহার করুন।

>আপনার চোখ আপনার সব থেকে বড় সম্পদ। তাই কোনও সস্তার নিচু মানের কাজল ব্য়বহার করা যাবে না। ভালো মানের দামি কাজল কিনতে হবে।

>ঘুমানোর আগে অবশ্য়ই চোখ পরিষ্কার করে ধুয়ে নিতে হবে। কাজল পরা অবস্থায় ঘুমানো যাবেনা না। এতে চোখের পাতা, পাতলা ত্বক ক্ষতিগ্রস্থ হয়।

>রোজ রোজ কাজল পরা ঠিক না। মাঝে মাঝে বিরতি দিতে হবে। এতে চোখ ভাল থাকবে। লোমকূপের মুখ বন্ধ হবে না। চোখের ত্বক ভাল থাকলেই আরও সুন্দর থাকবে কাজল।