Main Menu

বরগুনা রিফাত শরীফ হত্যাকাণ্ড ; ২নং আসামি রিফাত ফরাজী গ্রেপ্তার

বরগুনায় প্রকাশ্যে দিবালোকে রিফাত শরীফকে হত্যা মামলার দুই নম্বর আসামি রিফাত ফরাজীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বুধবার সকালে তাকে গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বরগুনার পুলিশ সুপার মো. মারুফ হোসেন।

তবে কখন ও কোথা থেকে রিফাত ফরাজীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বে বিষয়ে কিছুই বলেননি তিনি। সংবাদ সম্মেলন করে এ ব্যাপারে বিস্তারিত জানানো হবে বলে এসপি জানান।

গত বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নিকে নিয়ে কলেজ থেকে ফেরার পথে নয়ন, রিফাত ফরাজীসহ একদল যুবক রিফাত শরীফের ওপর হামলা চালায়। তারা ধারালো অস্ত্র দিয়ে রিফাত শরীফকে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকে। রিফাতের স্ত্রী আয়েশা হামলাকারীদের নিবৃত্ত করার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন। দুর্বৃত্তরা রিফাত শরীফকে উপর্যুপরি কুপিয়ে রক্তাক্ত করে চলে যায়। পরে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে তার মৃত্যু হয়।

বর্বরোচিত এই হত্যাকাণ্ডের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে মুহূর্তের মধ্যেই তা ভাইরাল হয়ে যায়। স্বামীকে বাঁচাতে স্ত্রীর ছোটাছুটির ভিডিওদৃশ্য ছুঁয়ে যায় গোটা দেশবাসীকে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা খুনিদের গ্রেপ্তারের নির্দেশ দেন।

নড়েচড়ে বসে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীও। পুলিশের পক্ষ থেকে চাঞ্চল্যকর হত্যাকাণ্ডটি গুরুত্বের সঙ্গে নেওয়া হয়। রিফাত শরীফের খুনিরা যেন দেশ ছাড়তে না পারে, সেজন্য সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থান নেয় পুলিশ। এজন্য দেশের সকল বিমানবন্দর, স্থলবন্দর ও নৌ-বন্দরে নির্দেশনা পাঠানো হয়।

পরে হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে নয়জন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে গ্রেপ্তার হন। গতকাল পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে নিহত হন মামলার প্রধান মূল আসামি নয়ন বন্ড। ধরাছোঁয়ার বাহিরে ছিল ২ নম্বর আসামি রিফাত ফরাজী এবং রিশান ফরাজী । তাদের মধ্যে রিফাত ফরাজীকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয় পুলিশ। রিশানকে গ্রেপ্তারে চেষ্টা চালানো হচ্ছে বলে জানিয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীটি।