Main Menu

উন্নত দেশ গড়তে সরকারের লক্ষ বাস্তবায়নে সম্মিলিতভাবে কাজ করতে হবে-জেলা প্রশাসক কবীর মাহমুদ

পাবনার সুজানগর উপজেলার জনপ্রতিনিধি সরকারী কর্মকর্তা, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, মুক্তিযোদ্ধা ও সুধীজনদের সাথে নবাগত জেলা প্রশাসক কবীর মাহমুদের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। উপজেলা পরিষদের আয়োজনে সোমবার সকালে উপজেলা পরিষদের হলরুমে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক কবীর মাহমুদ। উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহীনুজ্জামান শাহীনের সভাপতিত্বে স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুজিৎ দেবনাথ। বিশেষ অতিথির বক্তব্যদেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) শাহেদ পারভেজ, পৌর মেয়র আলহাজ্ব আব্দুল ওহাব, সহকারী কমিশনার (ভূমি) রানুয়ারা খাতুন, উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা রফিকুল হাসান, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (সুজানগর সার্কেল) ফরহাদ হোসেন।

এসময় অন্যানদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) হাদিউল ইসলাম, ইউপি চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম শাজাহান, বীর মুক্তিযোদ্ধা এস এম সামছুল আলম, মশিউর রহমান, শাহীন চৌধুরী, উপজেলা প্রকৌশলী রফিকুল ইসলাম, মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার ছাকমান আলী, প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মিনা খাতুন, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা রেজাউল করিম, মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হাই, সুজানগর নিজাম উদ্দির আজগর আলী ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ আলমগীর হোসেন, সুজানগর সরকারী পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আমজাদ হোসেন, শহীদ দুলাল বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মনছুর আলী। উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মর্জিনা খাতুন, পূজা উৎযাপন কমিটির সাধারণ সম্পাদক সুবোদ কুমার নটো, মুক্তিযোদ্ধা সুলতান মাহমুদ, উপজেলা আ.লীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক রেজাউল করিম রেজা মন্ডল সহ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, সরকারী কর্মকর্তা, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, সাংবাদিক ও সুধীজনেরা উপস্থিত ছিলেন। প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক কবীর মাহমুদ বলেন, আমি আপনাদের সাথে কাজ করার জন্য এখানে এসেছি, কোন মানুষ একা কাজ করতে পারে না। সম্মিলিতভাবে কাজ করলেই তা ফলোপ্রসু হয়। আমি আশা করবো আগের চেয়ে একটু হলে বেশি কাজ করবেন সবাই, সরকারের এজন্ডা বাস্তবায়নের জন্যই সরকারী কর্মকর্তাদের নিষ্ঠার সাথে কাজ করতে হবে। আমরা চাই মধ্যমায়ের দেশ থেকে উন্নত সমৃদ্ধশালী দেশে উন্নতি হতে সরকারের লক্ষ্য সফলভাবে বাস্তবায়ন করতে হবে। তিনি আরো বলেন এখন থেকে শিক্ষার উপর প্রায়োরিটি দিয়ে শিক্ষার মানউন্নয়ন করতে হবে। এ সমাজ থেকে মাদক মুক্ত করতেই হবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গ্রাম কে শহরের সুযোগ সুবিধা দিতে দিন-রাত কাজ করে যাচ্ছেন। উপজেলা চেয়ারম্যান শাহীনুজ্জামান শাহীন বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা এ দেশ থেকে জঙ্গীবাদ নিপাত করে আইন শৃঙ্খলা স্বাভাবিক পর্যায়ে নিয়ে এসেছেন। ঘরহীনদের ঘর র্নিমাণ করে পূর্ণবাসন করছেন। প্রান্তিক কৃষকদের কাছ থেকে ধান ক্রয় সহ কৃষকদের বিভিন্ন সুয়োগ সুবিধা প্রদান করছেন। মতবিনিময় সভার পূর্বে জেলা প্রশাসক কবীর মাহমুদ মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিস্তম্বে ফুল দিয়ে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। জেলা প্রশাসক কবীর মাহমুদ কে ফুলেল তোরা দিয়ে অভ্যার্থনা জানান উপজেলা চেয়ারম্যান শাহীনুজ্জামান শাহীন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুজিৎ দেবনাথ সহ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, সরকারী কর্মকর্তা, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও সুধীজনেরা। মতবিনিময় সভা সঞ্চালনা করেন আখতারুজ্জামান জর্জ মাস্টার। মতবিনিময় সভা শেষে জেলা প্রশাসক কবীর মাহমুদ সুজানগর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও উপজেলা আ.লীগের সাবেক সভাপতি প্রয়াত আবুল কাশেম মাস্টারের স্বরণে আবুল কাশেম নি¤œ মাধ্যমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন করেন।