পা দিয়ে লিখেই এ-গ্রেড পেল চান মিয়া
ঘাটাইল টাঙ্গাইল : প্রাথমিক সমাপনী (পিএসসি) পরিক্ষায় পা দিয়ে লিখেই এ-গ্রেড পেল ঘাটাইলের সেই শারিরিক প্রতিবন্ধী চান মিয়া । সে এবার টাঙ্গাইলের ঘাটাইল প্রতিবন্ধী বিদ্যালয় থেকে পিএসসি পরীক্ষা দিয়েছিল।তার গ্রেড পয়েন্ট ৪.২৫। সে টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার দিগড় ইউনিয়নের গারট্র গ্রামের প্রবাসী ফজলুল হকের  ছেলে। তার মায়ের নাম রত্না বেগম। চান মিয়ার এ সফলতায় বাবা-মা আত্বীয়-স্বজন ও শিক্ষক সহ সবাই খুশি।
এ সফলতায় তার মা রত্মা বেগম বলেন, শারীরিক প্রতিবন্ধী হওয়া সত্বেও ছেলে যে ফলাফল করেছে তা দেখে আমি খুশিতে আত্মহারা। তার বাবা বিদেশ থেকে ফোন করে ছেলের লেখাপড়া চালিয়ে যাওয়ার জন্য আরো উৎসাহ দিয়েছেন। তাই আমাদের ইচ্ছা ছেলে যতোদিন পড়ালেখা করতে চায় ততোদিন আমরা তার লেখাপড়া চালিয়ে যাবো। লেখাপড়া শিখে সে স্বাভলম্বী হোক এটাই আমাদের কামনা। প্রতিবন্ধী চাঁন মিয়ার স্বপ্ন লেখা পড়া করে বড় হয়ে শিক্ষক হবে।
ঘাটাইল প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়ের চেয়ারম্যান মোঃ রফিকুল বারী খান বলেন, এবছর আমার বিদ্যালয় থেকে প্রথম প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষায় ছাত্র-ছাত্রীরা অংশ নেয়। তাদের ফলাফল অত্যন্ত সন্তুষ জনক। তাদের এ সাফল্যে আমি আনন্দিত। বিদ্যালয়ের এ সাফল্যের ধারা অব্যাহত থাকবে বলে আমি আশাকরি। আমার ছেলে পা দিয়ে পরীক্ষা দিয়ে ভালো ফলাফল করার আমি সন্তুষ্ট। আমি কিভাবে অনুভুতি প্রকাশ কররো তা বলে বোঝাতে পারবো না।
 উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আবুল কাশেম মুহাম্মদ শাহীন জানান, প্রতিবন্ধী হিসাবে তার এ অর্জন অন্যান্য প্রতিবন্ধীদের লেখা পড়ায় উৎসাহ যোগাবে বলে আমি আশাকরি। দোয়া করি তার এ সফলতা অব্যহত থাকুক। উল্লেখ্য যে, চান মিয়ার পা দিয়ে লিখে পরীক্ষা দেয়ার খবর মানবজমিন পত্রিকায় প্রকাশিত হয়। পরে টাঙ্গাইলের জেলা প্রশাসক মহোদয় প্রতিবন্ধী চান মিয়ার লেখাপড়ার দায়িত্ব গ্রহণ করেন।
Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author