চাটমোহর (পাবনা) সংবাদদাতা :: পাবনার চাটমোহরে রামপুরের গনধর্ষণের রেশ কাটতে না কাটতেই ফের পার্শ্বডাঙ্গা ইউনিয়নের চরপাড়া গ্রামের পার্শ্ববর্তী বগার বিলে গনধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় শুক্রবার গভীর রাতে চাটমোহর থানায় মামলা হয়েছে। মামলা নং ২২।

জানা গেছে, পার্শ্বডাঙ্গা ইউনিয়নের চরপাড়া গ্রামের পার্শ্ববর্তী বগার বিল এলাকায় রাস্তায় ব্লক স্থাপনের কাজ চলছে। ঈশ্বরদীর পাকশীর বাবুপাড়ার সেলিমের স্ত্রী রুপা (৩০) এখানে শমিকদের জন্য রান্নার কাজ করতো এবং পাশের একটি অস্থায়ী ঘরে থাকতো। গত ২৬ ডিসেম্বর মাঝরাতে ১৫/২০ জন যুবক সাইট এলাকায় গিয়ে হেড মিস্ত্রিী আনিসুর রহমানকে মারধোর করে এবং দেশী অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে রূপাকে পার্শ্ববর্তী একটি মাটির খাদে নিয়ে যায়। আনিস দৌড়ে পালিয়ে পাটুলীপাড়া গ্রামবাসীকে জানালে গ্রামবাসী স্থানীয় মসজিদে মাইকিং করে লোকজন নিয়ে সাইট এলাকায় গেলে উক্ত যুবকেরা পালিয়ে যায়। এরই মধ্যে অন্তত ৩/৪ জন রূপাকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে।

লোক লজ্জার ভয়ে রূপা প্রথমে কাউকে কিছু না জানালেও বিষয়টি জানাজানি হয়ে গেলে গত শুক্রবার রাতে ৮ জনকে আসামী করে চাটমোহর থানায় একটি মামলা দায়ের করে রূপা।

এ ব্যাপারে চাটমোহর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা একরামুল হক সরকার জানান, “ আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। মেয়েটিকে পরীক্ষা নিরীক্ষার জন্য পাবনা জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে”।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author