গুরুদাসপুর বিআরডিবিতে নিয়োগ বাণিজ্যের অভিযোগে আদালতে মামলা

গুরুদাসপুর প্রতিনিধি.
নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলা পল্লী উন্নয়ন কার্যালয়ের সভাপতি, পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তা এবং নাটোরের পল্লী উন্নয়ন উপ-পরিচালক ও মহাপরিচালকসহ চারজনের বিরুদ্ধে প্রাতিষ্ঠানিক অনিয়ম ও অবৈধভাবে কর্মচারী নিয়োগের অভিযোগে নাটোরের সহকারি জজ আদালতে মামলা দায়ের করেছেন ওই সংগঠনের ৫জন পরিচালক।
মামলার নথিসুত্রে জানা গেছে, উপজেলা পল্লী উন্নয়ন কার্যালয়ের (বিআরডিবি)সভাপতি মো. শাহজাহান আলী ও আরডিও মো.হাসানুজ্জামান যোগসাজশের মাধ্যমে কোন প্রকার সাধারন সভার নিদ্ধান্ত ছাড়াই মোটা ্উৎকোচের বিনিময়ে পলাশচন্দ্র সরকার নামে একজনকে পরিদর্শক হিসেবে নিয়োগ প্রদান করা হয়েছে।
্এব্যাপারে ওই সংগঠনের পরিচালক মিসেস সফুরা আনাম, আব্দুল মজিদ, মজিবর রহমান, মোজাফফর হোসেন ও আবু বক্কার সিদ্দিকসহ ৫জন নাটোর সহকারি জজ আদালতে ৯/১৭ অঃপ্রঃ ও ১৯/১৭ অঃপ্রঃ পৃথক দুইটি মামলা দায়ের করেছেন।
মামলায় জেলা উপ-পরিচালক ও বিআরডিবির মহাপরিচালককেও বিবাদী করা হয়েছে। গত ১৭ জানুয়ারী ওই মামলাটি দায়ের করা হয়। বিজ্ঞ আদালত ২১ জানুয়ারি বিবাদীদের বিরুদ্ধে কেন আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবেনা মর্মে অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা জারি করেন।
কিন্তু তারা আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে অবৈধভাবে কর্মচারি নিয়োগের কারনে তাদের বিরুদ্ধে পুনঃরায় আদালতের আদেশ অবমাননার অভিযোগে ৭/১৭ ও ৮/১৭ নম্বর মোকর্দ্দমা দায়ের করা হয়।
এছাড়াও উপজেলা পল্লীউন্নয়ন কার্যালয়ের সাবেক পরিদর্শক আব্দুল মোতালিব আনামকে অবৈধভাবে চাকরি থেকে অব্যাহতি দেওয়ার অভিযোগেও অপর একটি মামলা দায়ের হয়েছে তাদের বিরুদ্ধে।
এব্যাপারে উপজেলা পল্লীউন্নয়ন কর্র্মকর্তা মো. হাসানুজ্জামান দাবী করেন, বিধি অনুসরণ করেই কর্মচারি পলাশ চন্দ্র সরকারকে নিয়োগ ও আব্দুল মোতালিব আনামকে চাকরি থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। তাদের হয়রানি করতেই এসব মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলাগুলো তারা আইনগতভাবে মোকাবেলা করছেন।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author