জোড়বাংলা মন্দির

পাবনা শহরের প্রাণকেন্দ্রে দক্ষিণ রাঘবপুরে শহরের পূর্ব-দক্ষিণে, রাঘবপুরে একটি শান বাঁধানো পুকুরের কাছে, এই জোড়বাংলা মন্দিরটি অবস্থিত। তবে চারিদিকের বাড়িঘরের কারণে বাইরের রাস্তা থেকে এ মন্দির দেখা যায় না। পাবনায় জোড়বাংলা মন্দিরে কোন শিলালিপি নেই।

ব্রিটিশ শাসন আমলে যখন ইমারতটি প্রত্নতত্ত্ব ও যাদুঘর অধিদপ্তর কর্তৃক সংরক্ষণের জন্য গৃহীত হয়েছিল তখনো এর কোন শিলালিপি ছিল না। স্থানীয় লোকমুখে প্রচলিত কাহিনীতে জানা যায় যে, ব্রজমোহন ক্রোড়ী নামক মুর্শিদাবাদের নবাবের এক তহশিলদার আঠার শতকের মধ্যভাগে এ মন্দির নির্মাণ করেন। এ মন্দিরটি আয়তনে বৃহৎ না হলেও বাংলাদেশের সকল জোড়বাংলা নিদর্শনের মধ্যে সুন্দরতম। এর গায়ে খণ্ড খণ্ড টেরাকোটায় উৎকীর্ণ শিল্পকর্ম মন্দিরটিকে সৌন্দর্যমণ্ডিত করেছে।

Recommend to friends
  • gplus
  • pinterest

About the Author