প্রধান সূচি

শেখ হাসিনার জন্ম না হলে স্বাধীনতার শক্তির উত্থান হতো না- ডেপুটি স্পিকার টুকু এমপি

সাঁথিয়া (পাবনা) প্রতিনিধি: জাতীয় সংসদের নবনিযুক্ত ডেপুটি স্পিকার এ্যাড. শামসুল হক টুকু এমপি বলেছেন, শেখ হাসিনার জন্ম না হলে বাংলাদেশে স্বাধীনতার শক্তির উত্থান হতো না। যে নেতা জন্ম না নিলে বাংলাদেশ স্বাধীন হতো না। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ তার পরিবারের সদস্য ও আত্বীয় স্বজনদের কে ঘাতকরা ১৫ আগস্টে নির্মম ভাবে হত্যা করে। শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা দেশের বাইরে না থাকলে ঘাতকের দলেরা তাদেরও হত্যা করতো। প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্ম না হলে দেশের সর্বভৌমত্ব রক্ষা করা সম্ভব হতো না। শেখ হাসিনার সরকার ক্ষমতায় আসায় স্বাধীনতার পতাকা বাংলার মাটিতে উড়ছে।আরও পড়ুন

‘এখনও মনের মতো চরিত্র পাইনি’

চিত্রনায়িকা নুসরাত ফারিয়া। নিয়মিত কাজ করছেন দুই বাংলার সিনেমায়। মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে তার একাধিক সিনেমা। সেই তালিকায় থাকা ‘অপারেশন সুন্দরবন’ দেশের প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাচ্ছে আজ। এই সিনেমাটির পাশাপাশি নিজের ক্যারিয়ার ভাবনাসহ ইন্ডাস্ট্রির নানা দিক নিয়ে কথা বললেন ইত্তেফাকের সঙ্গে। সাক্ষাৎকার নিয়েছেন এ এম রুবেল।প্রায় ২ বছর পর আপনার নতুন সিনেমা মুক্তি পাচ্ছে। সিনেমাটি প্রসঙ্গে জানতে চাই। নুসরাত ফারিয়া: হ্যাঁ, আজ আমার ‘অপারেশন সুন্দরবন’ সিনেমাটি মুক্তি পেয়েছে। এই সিনেমাটির জন্য অনেকদিন ধরে অপেক্ষা করছি। ৪ বছর কষ্ট করেছি। যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন থেকে বনে-জঙ্গলে শুটিং করেছি। এটি আমার ২০ তম সিনেমা হলেও মনেআরও পড়ুন

চাটমোহরের ফিরোজ হোসেন হত্যাকান্ডে সংবাদ সম্মেলন

স্টাফ রিপোর্টারঃ চাটমোহর উপজেলার ডিবিগ্রাম ইউনিয়নের দয়রামপুর নিজ বাড়ীর পাশ থেকে উদ্ধারকৃত ফিরোজ হত্যাকান্ডের বিষয়ে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত। গতকাল শনিবার বেলা ১১ টায় পাবনা সংবাদপত্র পরিষদ মিলনায়তনে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সমসের আলী (৩৬)। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ২নং থেকে ৯ নং আসামী। যথাক্রমে চাটমোহর থানার দয়ারামপুর গ্রামের মৃত কিনু প্রাং এর ছেলে আবু হানিফ, সমসের, দারোগ আলী এবং সায়দুল আদু প্রাং এর ছেলে চাঁদ, দারোগ আলীর ছেলে হযরত, আবু হানিফের ছেলে গোলাম রসুল এবং আটঘরিয়া উপজেলার ফুলবাড়িয়া গ্রামের গণি প্রাং এর ছেলেআরও পড়ুন

সম্প্রীতি রক্ষায় বগুড়ায় জেলা প্রশাসনের সমাবেশঃ সকল ধর্মের হাজারো মানুষের অংশগ্রহণ

সঞ্জু রায়, বগুড়া: বাংলাদেশের বিদ্যমান আন্তঃধর্মীয় সম্পর্ক ও সামাজিক বন্ধনকে সুংসহত রাখতে বগুড়া জেলা প্রশাসনের আয়োজনে শনিবার বিকেলে শহরের আলতাফুন্নেছা খেলার মাঠে সম্প্রীতি সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। যেখানে ধর্ম, বর্ণ, নির্বিশেষে হাজারো মানুষ প্রাণবন্তভাবে অংশগ্রহণ করেন এবং ঐক্যবদ্ধ শক্তিতে সাম্প্রদায়িকতাকে রুখে দিয়ে সম্প্রীতির বাংলাদেশ গড়ার অঙ্গিকার গ্রহণ করেন। বেলুন, ফেস্টুন ও শান্তির প্রতীক পায়রা উড়িয়ে উক্ত সম্প্রীতি সমাবেশের উদ্বোধন করেন বগুড়া জেলা প্রশাসক মো: জিয়াউল হক। উদ্বোধন পরবর্তী অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মাসুম আলী বেগের সভাপতিত্বে সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বগুড়া জেলা প্রশাসক মো: জিয়াউল হক বলেন, বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির একটিআরও পড়ুন

প্রধানমন্ত্রী পার্বত্যবাসীর ভাগ্যোন্নয়নে ব্যাপক উন্নয়ন বরাদ্দ দিয়েছেন-পার্বত্য মন্ত্রী বীর বাহাদুর

পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি বলেছেন, দেশ ও মানুষের উন্নয়নকে অগ্রাধিকার দিয়েই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার কাজ করে যাচ্ছে। তিনি বলেন, পার্বত্যবাসীর জীবনমান উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ব্যাপক উন্নয়ন বরাদ্দ দিয়েছেন।   আজ বান্দরবান জেলার লামা উপজেলার সদর ইউনিয়ন পরিষদ মাঠে পার্বত্য জেলা পরিষদের অর্থায়নে নির্মিত বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন এবং উপকারভোগীদের মাঝে নগদ অর্থ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি এসব কথা বলেন। মন্ত্রী বীর বাহাদুর বলেন, বান্দরবানের প্রতিটি নাগরিক শান্তি, সম্প্রীতি, দারিদ্র্যমুক্ত থেকে সার্বিক উন্নয়নের সুফল ভোগ করছে।আরও পড়ুন

নাটোরে ছাত্রলীগ নেতা দাফন সম্পন্ন॥ উপজেলা চেয়ারম্যানকে গ্রেফতার দাবি

নাটোর প্রতিনিধি নাটোরের নলডাঙ্গায় উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান আসাদ ও তার সমর্থকদের হামলায় নিহত ছাত্রলীগ নেতা জামিউল আলীম জীবনের দাফন সম্পন্ন হয়েছে। শনিবার বেলা ১১টার দিকে উপজেলার স্থানীয় আমতলী স্কুল মাঠে তার জানাযা নামাজশেষে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়। জানাযায় জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম রমজান, স্থানীয় সংসদ সদস্য শফিকুল ইসলাম শিমুলসহ উপজেলা আওয়ামীল, যুবলীগ, ছাত্রলীগের নেতাকর্মীসহ বিভিন্ন শ্রেণীপেশার মানুষ অংশ নেন। জামিউল আলীম জীবন নলডাঙ্গা উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এসএম ফিরোজের ভাতিজা ও ফরহাদ হোসেনের ছেলে। জীবন নলডাঙ্গা ডিগ্রী কলেজের ছাত্র ও উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্মআরও পড়ুন

ঈশ^রদীতে নর্যিাততি গৃহবধু মালা হত্যার বচিার ও আসািেদর ফাঁসরি দাবতিে সংবাদ সম্মলেন,মানববন্ধন-সমাবশে অনুষ্ঠতি

এএ আজাদ হান্নান,ঈশ^রদী ॥ ঈশ^রদীর ঝাউদয়িার আলোচতি গৃহবধু মালা খাতুন হত্যার সাথে জড়তিদরে গ্রফেতার,দৃষ্টান্ত মূলক শাস্ত,িবচিার ও ফাঁসরি দাবতিে এবং প্রধান মন্ত্রীর হস্তক্ষপে কামনায় সংবাদ সম্মলেন ও মানববন্ধন অনুষ্ঠতি হয়ছে।ে নহিতরে পরবিার ও এলাকাবাসীর পক্ষ থকেে শনবিার বলো এগারোটায় ঈশ^রদী উপজলো প্রসেক্লাবে আয়োজতি সংবাদ সম্মলেন ও মানববন্ধন-সমাবশেে বক্তব্য দনে,নহিত মালার পতিা সাগর আলী,মালার মাতা মমতাজ বগেম,মালার দুলাভাই আসাদুল ইসলাম নান্টু,ইউপি মম্বের স্বপন আলী,মালার ভাবী রহমিা খাতুন ও ফরিোজ আলী। বক্তারা অভযিোগ করে বলনে,বয়িরে পর থকেে যৌতুকরে জন্য মালাকে নানাভাবে নর্যিাতন করা হতো। নর্যিাতনরে বষিয়ে স্থানীয় মম্বেরসহ অভভিাবকরা অসংখ্যবার বচিার শালসিআরও পড়ুন

পাবনায় এসএসসি পরীক্ষার্থী অপহরন

স্টাফ রিপোর্টারঃ পাবনা পৌরসভার আদর্শ গার্লস স্কুলের এসএসসি পরীক্ষার্থী সুরাইয়া সুলতানা মুন নামের এক মেয়েকে অপহরন করা হয়েছে। এসএসসি পরীক্ষার্থী মুন পাবনা সদর উপজেলার হেমায়েতপুর ইউনিয়নের চকচিরট গ্রামের মাহফুজ ইসলাম মামুনের কন্যা। পাবনা সদর থানায় দায়েরকৃত এজাহার সুত্রে জানা গেছে, সুরাইয়া সুলতানা মুন নিজ বাড়ী থেকে স্কুলে যাওয়া আসার সময় চকছাতিয়ানি গ্রামের ইদ্রিস আলীর ছেলে ইমন (২৪) মুনকে প্রায়স্য নানাভাবে উত্যক্ত করতো। এ ঘটনা মুন তার পিতা মাতাকে জানালে তার পরিবারের পক্ষ থেকে ইমনের পিতা-মাতাকে একাধিকবার এ বিষয়ে জানানো হলেও তারা কোনা পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি। গত ২০ সেপ্টেম্বর এসএসসি পরীক্ষার্থীআরও পড়ুন

দূর্গা দেবীকে ফুটিয়ে তোলার অপেক্ষায় চাটমোহরের মৃৎশিল্পীরা রঙতুলির কাজে ব্যস্ত সময় পার করছে মোঃ নূরুল ইসলাম, চাটমোহর, পাবনা ঃ দরজায় কড়া নাড়ছে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় উৎসব দূর্গা পূজার অনুষ্ঠান। সারাদেশের ন্যায় পাবনার চাটমোহর উপজেলায় শুরু হয়েছে প্রতিমা তৈরির প্রস্তুতি। কাঁদামাটি, খড়, বাঁশ, কাঠ আর রং দিয়ে প্রতিমা তৈরিতে ব্যস্ত মৃৎশিল্পীরা। নিখুত ভাবে মনের মাধরী মিশিয়ে কারিগররা ফুটিয়ে তুলছেন দূর্গা দেবীকে। পাশাপাশি প্রতিটি মন্ডপে তৈরি করা হচ্ছে দূর্গা, সরস্বতী, লক্ষèী, কার্তিক, গণেশ, অসুর ও শিবের মূর্তি। উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদ সূত্রে জানা গেছে, চাটমোহরের নিমাইচড়া ইউনিয়নের বেলগাছি, বিলচলন ইউনিয়নের বোঁথর ও পৌর সদরের বালুচর মহল্লাসহ উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের কিছু প্রতিমা শিল্পী, প্রতিমা তৈরী করেন। গত বছরের চেয়ে এবার ৩ টি মন্ডপে দূর্গা পূজা কম হচ্ছে। বেলগাছি গ্রামের প্রতিমা শিল্পী অমল পাল জানান, বেলগাছি গ্রামের চারটি পরিবার প্রতিমা তৈরীর কাজ করেন। দূর্গা, স্বরস্বতী, কালী, লক্ষী, মনসা, শিব ঠাকুর, বিশ^কর্মা, গনেশসহ বিভিন্ন প্রতিমা তৈরী করেন তারা। যখন যেটা অর্ডার পান তখন সেটি তৈরী করে সরবরাহ করেন। তবে বর্তমান সময়ে দূর্গা পূজা আসন্ন হওয়ায় দূর্গা প্রতিমা তৈরীতেই ব্যস্ত তারা। এ বছর তিনি ৩২ টি দূর্গা প্রতিমার অর্ডার পেয়েছেন। কাঠামো তৈরী করে তাতে মাটি লাগানোর কাজ শেষ করে রং এর কাজ করছেন। তিনি আরো জানান, প্রতিমা তৈরীর উপকরণ খড়, বাঁশ, সুতলী, লোহা, রঙ, মাটি, ধানের তুষ, কাপড়সহ অন্যান্য উপকরণের দাম বেড়ে গেছে। আকার ভেদে এক একটি প্রতিমা ১০ হাজার থেকে ২০ হাজার টাকায় বিক্রি করা যায়। পাবনা ছাড়াও নাটোর, সিরাজগঞ্জসহ আশপাশ এলাকার সনাতন ধর্মাবলম্বীরা প্রতিমা কিনে নিয়ে যান। খুব বেশি লাভ করতে না পারলেও এ শিল্পকে আঁকড়ে ধরে কোন রকমে দিনাতিপাত করছেন তারা। অপূর্ব পাল জানান, এ বছর ১২ টি দূর্গা প্রতিমার অর্ডার পেয়েছেন তিনি। ইতিমধ্যে কাঠামো তৈরীর কাজ শেষ করেছেন। সনাতন পাল নামক অপর প্রতিমা শিল্পী ১০ টি দূর্গা প্রতিমা তৈরীর কাজ করছেন। তারা জানান, এঁটেল মাটি দুষ্প্রাপ্য হয়ে পরেছে। আগে মাটি কিনতে হতো না। এখন চড়া দামে মাটি কিনতে হয়। অন্যান্য উপকরণের দাম বাড়ায় তারা লাভ করতে পারছেন না। আবার পৈত্রিক পেশা ছাড়তেও পারছেন না। সব মিলিয়ে কোন রকমে টিকে আছেন তারা। বোঁথর গ্রামের প্রতিমা শিল্পী সত্যেন চক্রবর্ত্তী জানান, এ বছর ১২ টি দূর্গা প্রতিমা তৈরীর কাজ শুরু করেছেন তিনি। কাঠামো তৈরীর কাজ শেষ করে এখন রং এর কাজ করছেন। আশা করছেন পূজার আগেই সবগুলো সরবরাহ করতে পারবেন। তিনি আরো জানান, চাটমোহরের প্রায় ৩৫ জন প্রতিমা শিল্পী শতাধিক দূর্গা প্রতিমা তৈরীর কাজে এখন ব্যস্ত সময় পার করছেন। চাটমোহর উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি অশোক চক্রবর্ত্তী জানান, এ বছর চাটমোহরে ৫২ টি মন্দিরে দূর্গা পূজা অনুষ্ঠিত হবে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে মন্দির গুলোতে দূর্গা পূজা পালনের প্রস্ততি গ্রহন করা হচ্ছে। নির্বিঘেœ পূজা উদযাপনে তিনি সকলের সহায়তা কামনা করেছেন। চাটমোহর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ জালাল উদ্দিন বলেন, শান্তিপূর্ণ পরিবেশে যাতে পূজা উদযাপিত হয় সেজন্যসব ধরনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণের প্রস্তুতি নিয়েছে থানা পিিলশ। অন্যান্য বছরের মতো এবারও নিরাপত্তায় প্রতিটি মন্ডপে পুলিশ, আনসার ও স্বেচ্ছাসেবক মোতায়েন থাকবে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোছাঃ মমতাজ মহল বলেন, সরকারী নির্দেশনা মেনে ও আনন্দমুখর পরিবেশে দূর্গা উদযাপন করতে মন্ডপ কমিটি, থানা পুলিশ, জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের সাথে নিয়মিত যোগাযোগ করা হচ্ছে ও সংশ্লিষ্টদের সর্বদা প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেয়া হচ্ছে।

মোঃ নূরুল ইসলাম, চাটমোহর, পাবনা ঃ দরজায় কড়া নাড়ছে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় উৎসব দূর্গা পূজার অনুষ্ঠান। সারাদেশের ন্যায় পাবনার চাটমোহর উপজেলায় শুরু হয়েছে প্রতিমা তৈরির প্রস্তুতি। কাঁদামাটি, খড়, বাঁশ, কাঠ আর রং দিয়ে প্রতিমা তৈরিতে ব্যস্ত মৃৎশিল্পীরা। নিখুত ভাবে মনের মাধরী মিশিয়ে কারিগররা ফুটিয়ে তুলছেন দূর্গা দেবীকে। পাশাপাশি প্রতিটি মন্ডপে তৈরি করা হচ্ছে দূর্গা, সরস্বতী, লক্ষèী, কার্তিক, গণেশ, অসুর ও শিবের মূর্তি। উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদ সূত্রে জানা গেছে, চাটমোহরের নিমাইচড়া ইউনিয়নের বেলগাছি, বিলচলন ইউনিয়নের বোঁথর ও পৌর সদরের বালুচর মহল্লাসহ উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের কিছু প্রতিমা শিল্পী, প্রতিমা তৈরীআরও পড়ুন

ফেলে আসা দিন গুলো -ছয়

এবাদত আলী দেখতে দেখতে ১৯৬১ সাল এসে গেল। আমি তখন দাখেলি চাহারম অর্থাৎ জুনিয়র ক্লাসের ছাত্র। আমি আর মাদরাসায় লেখাপড়া করবোনা বলে সিদ্ধান্ত নিলাম। আব্বা কিছুটা গড় রাজি হলেও আমার মা আমার কথায় সঙ্গে সঙ্গে রাজি হয়ে গেলেন। কিন্তু মাদরাসার হুজুরগণ আমাকে ছাড়তে নারাজ। কারণ আমি মাদরাসা ত্যাগ করলে আমার দেখাদেখি অনেকেই মাদরাাসা ছেড়ে চলে যাবে। হলোও তাই আফ্ফান মামাসহ বেশ কজন মাদরাসা ছাড়ার ঘোষণা দিলো। এদিকে নুুরুল্লাহ হুজুর আমাকে এক বিপদের মধ্যে ফেলে দিলেন। সে এক মহা বিপদ। কোরবানির ঈদে তিনি যাবেন নাটোর মহকুমার বড়াইগ্রাম থানার চান্দাই গ্রামে ঈদেরআরও পড়ুন