প্রধান সূচি

জামায়াত নেতার ছেলে কৃষকলীগের সভাপতি!

সোহেল রানা,সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি: জামায়াত নেতার ছেলে মাসুম বিল্লাহ্কে সিরাজগঞ্জের সলঙ্গা থানার ধুবিল ইউনিয়ন কৃষকলীগের সভাপতি নির্বাচিত করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় নেতা-কর্মীরা মিশ্র প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন। সলঙ্গায় থানা আওয়ামীলীগ কর্যালয়ে গত শুক্রবার সন্ধ্যায় ৬১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটির অনুমদন দেন থানা কৃষকলীগের সভাপতি আব্দুল হান্নান নান্নু,সাধারণ সম্পাদক আখতারুজ্জামান সাচ্চু। মাসুম বিল্লাহ্ সলঙ্গা থানার ধুবিল ইউনিয়নের আমশড়া গ্রামের আব্দুল গফুরের ছেলে। আব্দুল গফুর ধুবিল ইউনিয়ন পরিষদে জামায়তের সমর্থন নিয়ে নির্বাচন করেছেন বলে অভিযোগ রয়েছে। মাসুম বিল্লাহ্ চাচা আব্দুস সামাদ জামায়াতের শিষ্য নেতা তিনি জামায়াতের রাজনীতির জন্য একাধিক বার জেল হাজাতেআরও পড়ুন

গুরুদাসপুরে ব্যবসায়ীকে হত্যা চেষ্টা!

নাটোর প্রতিনিধি. নাটোরের গুরুদাসপুরে ব্যবসায়ীকে হত্যাচেষ্টার অভিযোগ উঠেছে নাজিরপুর ইউনিয়ন পরিষদের নব-নির্বাচীত চেয়ারম্যান মোঃ আইয়ুব আলীর সমর্থকদের বিরুদ্ধে। সোমবার দুপুরে নাজিরপুর ইউনিয়ন পরিষদের সামনে ওই ঘটনা ঘটে। আহত ব্যবসায়ী সালেহ আহমেদ বিপুল নাজিরপুর বাজারের ওয়াহেদের ছেলে। গুরুত্বর আহত অবস্থায় বিপুলকে গুরুদাসপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছেন স্থানীয়রা। আহত বিপুল জানান, নাজিরপুর বাজারের ইউনিয়ন পরিষদের সামনে তার খেলাঘরের দোকান রয়েছে। সকালে একটি অপরিচিত ছেলে তার দোকানে দৌড়ে এসে একটি স্ট্যাম্প নিয়ে চলে যায়। তিনি তাকে থামানোর চেষ্টা করলেও সেই ছেলে দৌড়ে চলে যায়। স্ট্যাম্প নিয়ে চলে যাওয়া ছেলেটি নাজিরপুর স্কুলে গিয়েআরও পড়ুন

ডবল হ্যাট্রিক! পৌরসভা নির্বাচনে পরপর টানা ৬ বার জয় পান্নার

নাটোর প্রতিনিধি নাটোর পৌরসভা নির্বাচন শেষে ভোটগণনা শুর“র প্রথম রাউন্ডেই জয়ের আঁচ পেয়েছিলেন ৪,৫ ও ৬ ওয়ার্ডের সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর কোহিনূর বেগম পান্না । ১৬৯ বছরের ঐতিহ্যবাহী নাটোর পৌরসভার ইতিহাসে প্রথম কোন নারী একটানা ছয়বার কাউন্সিলার নির্বাচিত হওয়ায় দলের কর্মী, সমর্থকরাও তাঁদের ঘিরে উ”ছ¡াসে ফেটে পড়েছেন। ১৯৯০ সাল থেকে ৪,৫ ও ৬ নম্বর ওয়ার্ডে অপরাজিত কোহিনূর বেগম পান্না। কাউন্সিলার হিসেবে তাঁর জয়ে বাধা হয়ে দাঁড়ায়নি কোনও কিছুই। ৪,৫ ও ৬ ওয়ার্ড থেকে এই নিয়ে ষষ্ঠবার লড়াইয়ে ফের জয়ী পান্না । একটানা কমিশনার ও কাউন্সিলর নির্বাচিত হওয়ার পরও গ্রহণযোগ্যতা একটুও কমেনি।আরও পড়ুন

বিধিনিষেধ না মানলে লকডাউন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

চলমান ১১ দফা বিধিনিষেধ অমান্য করলে লকডাউন দেওয়া হতে পারে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। তিনি বলেন, ‘করোনাভাইরাসের সংক্রমণের উর্ধ্বগতি রুখতে বিধিনিষেধ না মানলে লকডাউন দেওয়া হবে।’ আজ শনিবার (১৫ জানুয়ারি) মানিকগঞ্জে এ কথা বলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী। মন্ত্রী বলেন, করোনা ঊর্ধ্বমুখী। গত একদিনে প্রায় ৪ হাজার ৪০০ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এর শতকরা হার ১৩ ছাড়িয়ে গেছে। প্রতিদিন এক থেকে তিন শতাংশ হারে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে যাচ্ছে। এটা আশঙ্কাজনক। বর্তমানে প্রায় ১ শতাংশ লোকের আইসিইউ প্রয়োজন হচ্ছে। আর এই হারে রোগীর সংখ্যা বাড়তে থাকলে হাসপাতালে জায়গা হবে না। করোনাভাইরাসের সংক্রমণআরও পড়ুন

বড়াইগ্রামে গলায় ফাঁস দিয়ে মানষিক প্রতিবন্ধীর আত্মহত্যা

সুজন কুমার,নাটোর নাটোরের বড়াইগ্রামে মিলন (২০) নামে মানষিক এক প্রতিবন্ধীর গলায় ফাঁস দিয়ে আত্নহত্যার ঘটনা ঘটেছে। শনিবার সকাল ১১ টার দিকে উপজেলার জোয়াড়ী ইউনিয়নে বালিয়া গ্রামের বাড়ির উত্তর পাশের বাগানে এই ঘটনা ঘটে। মিলন বালিয়া গ্রামের মোঃ শামসুল হক(মেরু) এর ছেলে। এলাকাবাসী জানায়,মিলন অনেকদিন ধরে মানষিক রোগে ভুগছে। ইতিপূর্বে কয়েকবার বিষ পানে আত্মহত্যার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়েছে। আজ সকালে সকলের অজান্তে তার বাড়ির উত্তর পাশের বাগানের গাব গাছের সাথে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। বড়াইগ্রাম থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ নজরুল ইসলাম বলেন, ঘটনা জানতে পেরে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। লাশ মর্গেআরও পড়ুন

আজ থেকেই গণপরিবহনে নতুন নিয়ম চালু

করোনাভাইরাসের সংক্রমণের উর্ধ্বগতি রুখতে বিধিনিষেধ গত বৃহস্পতিবার থেকেই কার্যকর হয়েছে। আজ শনিবার (১৫ জানুয়ারি) থেকে পরিবর্তিত নিয়মে গণপরিবহন চলার কথা রয়েছে। প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী, গণপরিবহনে স্বাস্থ্যবিধি মানার লক্ষ্যে আজ থেকে আসন সংখ্যার অর্ধেক নিয়ে চলার কথা গণপরিবহন। তবে বাস চলবে পূর্ণ যাত্রী নিয়ে। ট্রেন চলবে অর্ধেক যাত্রী নিয়ে। আর লঞ্চের বিষয়ে এখনো সিদ্ধান্ত হয়নি। ফলে আগের মতোই যাত্রী পরিবহন করা হচ্ছে লঞ্চে।সবাইকে মাস্ক পরতে হবে। বাসে স্যানিটাইজার রাখতে হবে। করোনা টিকার সনদ ছাড়া বাস চালাতে পারবেন না চালক ও শ্রমিকরা। রেল সচিব ড. হুমায়ুন কবির বলেন, সরকারি নির্দেশনা মেনে শনিবার থেকেআরও পড়ুন

এত ভালোবাসার দরকার নাই, আমি সত্যিই ক্লান্ত: ফারিয়া

অভিনেত্রী শবনম ফারিয়া। নিপুন অভিনয়ের মাধ্যমে দর্শকের হৃদয়ে জায়গা করে নিয়েছেন বহু আগেই। ২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারিতে ভালোবেসে বিয়ে করেছিলেন হারুনুর রশীদ অপুকে। ধুমধাম করে বিয়ে করলেও সংসার টিকেছিল ১ বছর ৯ মাস। এরপর তারা নিজেদের ভিন্ন পথ বেছে নেন, মানে বিচ্ছেদ। সংসার জীবনে অতিষ্ট হয়েই বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। এবার নতুন গুঞ্জন, প্রেম করছেন ফারিয়া। শোবিজ অঙ্গনে কান পাতলে শোনা যাচ্ছে, নতুন করে প্রেমে পড়েছেন শবনম ফারিয়া। প্রেমিকের সঙ্গে তিনি নাকি কিছুদিন আগে কক্সবাজার ও সেন্টমার্টিন থেকেও ঘুরে এসেছেন। এই গুঞ্জনের সংবাদ প্রকাশের পর থেকে কিছু না বললেও শবনম ফারিয়া এআরও পড়ুন

সংক্রমণ এড়াতে স্কুলে গেলে কী করতে হবে

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে ১১টি বিধিনিষেধ দিয়ে নতুন প্রজ্ঞাপন জারি করেছেন সরকার। আগামী ১৩ জানুয়ারি থেকে এ বিধিনিষেধে বলা হয়েছে ১২ বছরের বেশি বয়সী সব শিক্ষার্থীকে শিক্ষা মন্ত্রণালয় কর্তৃক নির্ধারিত তারিখের পরে টিকা সনদ ছাড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হবে না। শিক্ষা কার্যক্রম স্বাভাবিক রাখতে, কোমলমতি শিক্ষার্থীদের কিছু বিষয় মেনে চলতে হবে। শিক্ষকদের পাশাপাশি অভিভাবকদেরও এ বিষয়ে তাদের সচেতন করতে হবে। স্কুলে যাওয়ার সময় ভালো মানের মাস্ক পরাতে হবে শিশুকে। শিশুদের মানসিকতা ও চলাফেরায় মাস্ক একটা বাধা, ভীতি ও অস্বস্তি। দীর্ঘ সময় মাস্ক পরে থাকা তার জন্য কষ্টকরও। তাইআরও পড়ুন

টানা ৬৭ বছর গোসল করেননি এই ব্যক্তি!

একটানা কত দিন স্নান না করে থাকতে পারবেন? এক-দু’দিন বা নিদেন পক্ষে তিন-চার দিন! উত্তরটা ‘হ্যাঁ’ হলে ইরানের এক বৃদ্ধের কাছে একদমই হেরে গেলেন আপনি। ইরানের এই বৃদ্ধ নাকি টানা ৬৭ বছর ধরে গোসল করেননি। দেশটির সংবাদমাধ্যমে তার এই খবর প্রকাশিত হওয়ার পর প্রশ্ন উঠেছে, তবে কি এই বৃদ্ধই দুনিয়ার সবচেয়ে ‘নোংরা, অপরিষ্কার’ ব্যক্তি? ‘তেহরান টাইমস’ নামে ইরানের একটি দৈনিক সংবাদপত্রে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে জানা গেছে, কেরমানশাহ প্রদেশের দেজগাহ গ্রামের বাসিন্দা আমো হাজি প্রায় সাত দশক ধরে গোসল করেননি। দিব্যি বেশ ভালো রয়েছেন বৃদ্ধ! তবে গায়েমাথায় নিয়মিত সাবান-শ্যাম্পুর ঘষামাজা নাআরও পড়ুন

মেদ কমিয়ে আকর্ষণীয় হবেন যেভাবে

পেটের মেদ কমিয়ে স্লিম থাকতে কে না চায়, কিন্তু প্রতিদিন শরীরচর্চা বা যোগব্যায়ামে অনীহায় পেটে ধীরে ধীরে রাজত্ব করতে শুরু করে চর্বি। অনেকে কম খাওয়াদাওয়া করার পরেও তাদের পেটের আয়তন ক্রমশ বাড়তেই থাকে। তাই মেদ কমিয়ে আকর্ষণীয় হবেন যেভাবে, জেনে নিন। প্রথমেই পেটের ব্যায়াম করার সময় লক্ষ্য রাখতে হবে পেটের মাংসপেশিগুলোর ওপর যেনো চাপ পড়ে। এই চাপ পেটের চর্বি কমাতে দারুণ সহায়ক। প্ল্যাঙ্ক বা সিট-আপ করার সময়টাতে অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে যাতে ঘাড় বা পায়ে অতিরিক্ত চাপ না পড়ে। এতে ভুড়ি তো কমেই না উল্টো ঘাড়ে, পিঠে, কোমরে ব্যথার মতোআরও পড়ুন