প্রধান সূচি

অপকর্ম, মাদকদ্রব্য, সন্ত্রাস দমনে পুলিশের ন্যয় সাংবাদিকদের ভূমিকাও অতুলনীয়–নবাগত পুলিশ সুপার মহিবুল ইসলাম খান

পাবনা প্রতনিধি:ি
পাবনার নবাগত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মহিবুল ইসলাম খান বলেছেন, দেশ ও সমাজ থেকে সকল অপকর্ম, মাদকদ্রব্য, সন্ত্রাস দমনে পুলিশের ন্যয় সাংবাদিকদের ভূমিকাও অতুলনীয়। এ সময় তিনি পাবনায় কর্মরত সকল সাংবাদিকদের সার্বিক সহায়তা কামনা করেন।
গতকাল শনিবার বিকেলে তার কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় কালে এ কথা বলেন। এ সময় বক্তব্য রাখেন, পাবনা প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা রবিউল ইসলাম রবি, পাবনা প্রেসক্লাব সভাপতি এবিএম ফজলুর রহমান, পাবনা সংবাদপত্র পরিষদের সভাপতি আব্দুল মতীন খান, প্রেসক্লাব সম্পাদক সৈকত আফরোজ আসাদ, সহসভাপতি মির্জা আজাদ, সংবাদপত্র পরিষদের সাধারন সম্পাদক শহিদুর রহমান শহিদ, কল্যাণ সম্পাদক এসএম মাহবুব আলম, প্রেসক্লাবের সাবেক সম্পাদক আহমেদ উল হক রানা, আঁখিনুর ইসলাম রেমন, প্রবীন সাংবাদিক আব্দুল হামিদ খান, একুশের টিভির রাজিউর রহমান রুমী, রিপোটার্স ইউনিটির সাধারন সম্পাদক কাজী মাহাবুব মোর্শেদ বাবলা, প্রথম আলোর প্রতিনিধি সেরোয়ার উল্লাস, এসএ টিভির কলিট তালুকদার, একাত্তর টিভির মুস্তাফিজ রাসেল, বিবৃতির পাভেল মৃধা, এটিএন নিউজের রিজভী জয়, ডিবিসি নিউজের পার্থ হাসানসহ আরো অনেকে। এ ছাড়া পাবনায় কর্মরত স্থানীয়, জাতীয় দৈনিক পত্রিকা ও ইলেকট্রনিক টিভি চ্যানেলের সাংবাদিকেরা এসময় উপস্থিত ছিলেন।
পাবনা জেলা পুলিশের অভিভাবক জেলার আইন শৃঙ্খলা রক্ষার বিশেষ দায়িত্ব পলনকারী তরুন, মেধাবী ও অভিজ্ঞ এই পুলিশ কর্মকর্তা কুড়িগ্রাম জেলার পুলিশ সুপারের দায়িত্বে ছিলেন। আর দীর্ঘ দুই বছরেরও বেশি সময় পাবনা জেলা পুলিশেল অভিভাবকের দায়িত্ব পালন করেছেন সদ্য বিদায়ী পুলিশ সুপার শেখ রফিকুল ইসলাম (বিপিএম পিপিএম)। উপস্থিত গণমাধ্যম কর্মীদের পরিচয় পর্বের পরে পুলিশ সুপার নিজের পরিচয় ও কাজের কর্মদক্ষতা বৃদ্ধির জন্য গলমাধ্যম কর্মী ভাইদের কাছে সহযোগিতা চাইলেন।
তিনি বলেন, জেলার আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে সকলের সহযোগিতার পাশাপাশি সবচাইতে বেশি সহযোগিতা প্রত্যাশা করি সাংবাদিক ভাইদের কাছে। যেকোন সময়ে যেকোন প্রয়োজনে অমি আপনাদের পাশে আছি। শুধু আমাকে যেকোন অপরাধ, মাদক, আইন অমান্যকারী কাজ হলে কল করবেন আমি চেষ্টা করবো সমস্যা সমাধানের। গণমাধ্যম কর্মীদের তথ্য সরবরাহসহ যেকোন তথ্য প্রাপ্তির জন্য জেলা পুলিশের আলাদা সেল গঠন করা হবে। আমার অপেক্ষায় থাকতে হবে না। আমি কাজের গতি তথ্য প্রাপ্তির জন্য সকল ধরনের ব্যবস্থা করে দিবো।
মতবিনিয়ম সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন পাবনা জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শামিমা আক্তার, অকিরিক্ত পুলিশ সুপর মাসুদ আলম, পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি নাসিম আহম্মেদসহ জেলা পুলিশের দায়িত্বশীল কর্মকর্তাগণ এসময় উপস্থিত ছিলেন।