প্রধান সূচি

ইছামতি নদী উদ্ধারে আপনারা জেগে ওঠলে ,জেগে উঠবে জেলা প্রশাসন-বিদায়ী জেলা প্রশাসক কবীর মাহমুদ

স্টাফ রিপোর্টারঃ বিদায়ী জেলা প্রশাসক কবীর মাহমুদ বলেছেন, পাবনার ঐতিহ্যবাহী ইছামতি নদী খনন কাজ এবং উচ্ছেদ খুব শীঘ্রই শুরু হবে। আমি এক বছর আগে যে কাজটি শুরু করেছিলাম আগামীতে তা শেষ হবে । ইনশাল্লাহ। কাজটি সুন্দর ভাবে সমাপ্ত করতে হলে সবার আগে আপনাদের আন্তরিকতা লাগবে। আপনারা জেগে ওঠলে ,জেগে উঠবে জেলা প্রশাসন। আমি যেখানেই থাকি না কেন পাবনার ইছামতি নদীর ব্যবপারে কখনো আমাকে প্রয়োজন হলে আমার সাথে যোগাযোগ করবেন। আমি পাবনাবাসীর ভালাবাসায় সিক্ত। পাবনাবাসীর চাওয়া পাওয়ার সাথে আমি আমার জেলা প্রশাসক হিসেবে কর্মরত থাকা কালিন যে ভাবে আন্তিরিক ছিলাম । ভবিষ্যতেও থাকবো। বিদায়ী জেলা প্রশাসকের হাতে সম্মাননা ক্রেষ্ট তুলে দেন ইছামতি নদী উদ্ধার আন্দোলন পাবনার সভাপতি সিনসা সম্পাদক এস এম মাহবুব আলম ও সাধারণ সম্পাদক পল্লীউন্নয়ন সমবায় ফেডারেশন পাবনা‘র চেয়ারম্যান আলহাজ্ব হাবিবুব রহমান হাবিব। গতকাল ১৬ জুন বেলা ১২ টায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সহ-সভাপতি সূচনা সমাজ কল্যাণ সংস্থার নিবার্হী পরিচালক পূর্ণিম ইসলাম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পাইওনিয়ার ইন্টারন্যাশনাল স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ জেবুন্নেছা ববিন,সাংগঠনিক সম্পাদক সাহিত্য ও বিতর্ক ক্লাব পাবনার সভাপতি ড. মনছুর আলম,প্রচার সম্পাদক শফিক আল কামাল,মহিলা বিষয়ক সম্পাদক আহম্মেদ রফিক বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হেলেনা খাতুন,স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক লতিফ গ্রুপের নির্বাহী সদস্য মাহি বিশ্বাস,সর্ব সদস্য ইমাম গাযযালী গালর্স স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ সুরাইয়া সুলতানা, কৃষিবিদ জাফর সাদেক, এফবিসিসিআই কো-চেয়ারম্যান হাজী ফারুক, আব্দুল কাদের মাস্টার,ক্যাব সদস্য মনোয়ারা পারভীন, সূচীতা‘র নির্বাহী পরিচালক নাসরিন পারভীন, কবি ও সাংবাদিক করুনা নাসরিন,পাঠশালার সেক্রেটারী শিশির ইসলাম, কবি মোমতাজ রোজ কলি,সাংবাদিক তানভীর ইসলাম অয়ন প্রমুখ।