প্রধান সূচি

সাঁথিয়ায় বাড়ির সীমানাকে কেন্দ্র করে বাড়ি-ঘর ভাংচুর, আহত ৮

সাঁথিয়া প্রতিনিধি: পাবনার সাঁথিয়ায় বাড়ির সীমানাকে কেন্দ্র করে বাড়ি-ঘর ভাংচুর সহ জোরপূর্বক প্রাচীর নিমার্ণ। বাধা দিতে গিয়ে আহত হয়েছে অন্তত ৮জন। আহতদেরকে সাঁথিয়া ও পাবনা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। প্রাণ ভয়ে বাড়ী ছাড়া ভুক্তভোগী পরিবার।

লিখিত অভিযোগে জানা যায়, সাঁথিয়া উপজেলাধীন তেথুলিয়া পুরানপাড়া গ্রামের মৃত মান্নান মোল্লার ছেলে আবুল কালামের সাথে প্রতিবেশী মৃত মাজেদ মোল্লার ছেলে গোলাম মোস্তফা মধ্যে বাড়ির সীমানা নিয়ে দীর্ঘদিন যাবৎ বিরোধ চলে আসছিল। গত ৮ জানুয়ারী গোলাম মোস্তফা সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে বাড়ি-ঘর ভাংচুর করে জোরপূর্বকভাবে সীমানা প্রাচীর নির্মাণ করে। এ সময় আবুল কালাম বাধা দিতে গেলে সন্ত্রাসী বাহিনীরা তাকে দেশী তৈরী অস্ত্র দিয়ে এলোপাথারীভাবে পিটিয়ে গুরুত্বর আহত করে।তার ডাক চিৎকারে ছেলে আবুল হাশেম, সেলিম রেজা, ছেলের বউ ফাতেমা, তাসলিমা খাতুনসহ প্রতিবেশী নাজমা খাতুন, কল্পনা আগাইয়া গেলে সংঘর্ষ বেধে যায়। এতে আবুল কালাম(৭০), সেলিম রেজা(৪৫), হাশেম আলী(৩৫), নাজমা খাতুন(৪৫), কল্পনা(২৫) ,মোহম্মদ(৪০), সেফালী(৩৫), মঞ্জুর(৩০) গুরুত্বর আহত হয়। আহতদেরকে প্রথমে সাঁথিয়া হাসপাতালে ভতি করা হয়। গুরুতর আহত সেলিম ও আবুল হাশেমকে অবস্থা আশংকজনক হওয়ায় পাবনা জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। এঘটনায় গোলাম মোস্তফা বাদী হয়ে ৯জনের নাম উল্লেখ সহ আরো ২/৩জন অজ্ঞাত আসামী করে সাঁথিয়া থানায় মামলা দায়ের করে। মামলা নং ১০,তারিখ-১৪/০১/২০২১ইং। অপরদিকে আবুল কালাম বাদী হয়ে পাবনার ৫নং কগনাইজিং আদালতে দঃ বিঃ ১৪৮/৪৪৮/৩২৩/৩২৪/৩২৬/৩০৭/৪২৭/১০৯ ধারায় পিং মোকাদ্দমা নং-২/২০২১ (সাঁথিয়া) দায়ের করে। মোকদ্দমা দায়ের পর থেকে আসামীরা বিভিন্ন ভাবে জীবনাশের হুমকি দেয়ায় বাদী তার পরিবারের সকল সদস্য নিয়ে বাড়ি ছেড়ে ভয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে। এঘটনায় আবুল কালামের ছেলে দেলোয়ার বাদী হয়ে পাবনার বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিস্টেট আদালত নং-২ ফৌঃ কাঃ বিঃ ১০৭/১১৭ (গ) ধারায় মোকদ্দমা নং পিটিশন- ৩৫/২০২১ (সাঁথিয়া) দায়ের করে। এঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।
সাঁথিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ আসাদুজ্জামান জানান, এ ব্যাপারে মামলা দায়ের হয়েছে। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।