প্রধান সূচি

চোট নিয়েও দুর্দান্ত জয় সাবালেঙ্কার

হাত ভেঙে গেল কি না তা নিয়ে ভয়ে ছিলেন নারী একক টেনিসের দ্বিতীয় বাছাই আরিনা সাবালেঙ্কা। তবে চোট নিয়েও দুর্দান্ত খেলেছেন এই বেলারুসকন্যা। স্লোভেনিয়ার তামারা জিদানসেককে সরাসরি সেটে উড়িয়ে ৬-৩ ও ৬-১ গেমে ইউএস ওপেনের তৃতীয় রাউন্ডে পৌঁছে যান তিনি। যেখানে তার প্রতিপক্ষ ড্যানিয়েল কলিনস।

প্রথম সেট খেলার সময় হাতে ব্যথা অনুভব করছিলেন সাবালেঙ্কা। যন্ত্রণা কমানোর জন্য বিরতিতে বারবার কবজিতে বরফ দিতে থাকেন তিনি। কিন্তু সময়ের সঙ্গে সঙ্গে আরও বাড়তে থাকে ব্যথার তীব্রতা। সাবালেঙ্কা বলেন, ‘আমার মনে হয়েছিল, হাত ভেঙে গিয়েছে। এনিয়ে আমি খুবই চিন্তিত ছিলাম, খুবই যন্ত্রণা দিচ্ছিল। সময় গড়ানোর সঙ্গে এটি আরও বাড়তে থাকে এবং আঙুলের ক্ষত আরও কালো হয়ে যাচ্ছিল। আমি সত্যিই খুব খুশি যে ম্যাচ শেষ করতে পেরেছি। সেরে ওঠার জন্য অতিরিক্ত একটা দিন আছে, দেখি কী হয়। আশা করি, ভালো করে বিশ্রাম নিতে পারব।’

সাবালেঙ্কার মতোই একই ব্যবধানে তৃতীয় রাউন্ড নিশ্চিত করেছেন নারী এককের আরেক ফেভারিট সিমোনা হালেপ। দুই বার গ্রান্ড স্ল্যাম জয়ী এই তারকার পরের প্রতিপক্ষ এলেনা রিবাকিনা। এদিকে লম্বা বাথরুম বিরতির কারণে ফের সমালোচনার শিকার হয়েছেন গ্রিক তারকা স্তেফানোস সিটসিপাস। আদ্রিয়ান মারিয়ানোকে ৬-৩, ৬-৪, ৬-৭ (৪-৭), ৬-০ গেমে হারানোর ম্যাচে ফের লম্বা বাথরুম বিরতিতে যান তিনি। তাই ফ্লাশিং মিডোর দর্শকদের কাছ থেকে অবজ্ঞার শিকার হতে হয় তাকে। পুরুষ এককে তিনি ছাড়াও দ্বিতীয় রাউন্ড পাড়ি দিয়েছেন দানিল মেদভেদেভ, আন্দ্রি রুবলফরা।