প্রধান সূচি

মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতি ত্বরান্বিত করতে হবে -বীর মুক্তিযোদ্ধা অঞ্জন চৌধুরী পিন্টু

সুজানগর (পাবনা) প্রতিনিধি ঃ স্কয়ার গ্রুপ ও মাছরাঙা টেলিভিশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক বীর মুক্তিযোদ্ধা অঞ্জন চৌধুরী পিন্টু বলেছেন, যুদ্ধো এখনও শেষ হয়নি, স্বাধীনতা এবং মুক্তিযুদ্ধের চেতনাই বাঙালির মূলচালিকা শক্তি। স্বাধীনতা এবং মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে বাদ দিয়ে বাঙালির অস্তিত্ব কল্পনা করা যায়না। সুতরাং মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতি ত্বরান্বিত করতে হবে। শনিবার পাবনার সুজানগরে মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি একথা বলেন। অঞ্জন চৌধুরী পিন্টু উপস্থিত মুক্তিযোদ্ধাদের উদ্দেশ্য করে আরও বলেন, সুজানগরের মুক্তিযোদ্ধারা অনেক সাহসী এবং সংগ্রামী। ১৯৭১সালে আমি যখন সুজানগরে মুক্তিযুদ্ধ করেছি তখন দেখেছি তারা দেশমাতৃকার টানে পরিবার পরিজনকে ত্যাগ করে প্রাণের মায়া ভুলে পাকসেনাদের বিরুদ্ধে কিভাবে সম্মুখ যুদ্ধে অংশ নিয়েছে। আমি সারা জীবন সুজানগরের মুক্তিযোদ্ধা তথা সুজানগরের মুক্তিকামী মানুষের কথা মনে রাখবো। সেই সঙ্গে সুজানগরের উন্নয়নে কাজ করে যাবো। উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহীনুজ্জামান শাহীনের সভাপতিত্বে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত ঐ সভায় আরো বক্তব্য রাখেন, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার হাব্বিুর রহমান হাবিব, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক ও আইনজীবী সমিতির সভাপতি এডঃ বেলায়েত আলী বিল্টু, সুজানগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল ওহাব, পাবনা পৌরসভার সাবেক মেয়র কামরুল হাসান মিন্টু, কেন্দ্রীয় আ’লীগ নেতা কামরুজ্জামান উজ্জ্বল, বেড়া উপজেলা চেয়ারম্যান রেজাউল হক বাবু, সুজানগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আব্দুল জলিল বিশ্বাস, সুজানগর পৌর মেয়র রেজাউল করিম রেজা, পাবনা সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাইদ খান, জেলা আওয়ামী যুবলীগের আহবায়ক আলী মর্তুজা বিশ্বাস সনি, যুগ্ম আহবায়ক শিবলী সাদিক, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার রুহুল আমীন, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হাই, এসএম শামছুল আলম, মতিউর রহমান ও আব্দুর রাজ্জাক মাস্টার। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন উপজেলা ছাত্র লীগের সভাপতি জাহিদুল ইসলাম তমাল ও বীর মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ড সুজানগর উপজেলা শাখার যুগ্ম সম্পাদক জহিরুল ইসলাম লিটু। এর আগে পিন্টু চৌধুরী তার বাবা স্কয়ার গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রয়াত স্যামসন এইচ চৌধুরীর নামে নামকরণকৃত সুজানগরের জিরো পয়েন্ট হতে সুজানগর ত্রিরতœ ক্লাব পর্যন্ত স্যামসন এইচ চৌধুরীর সড়ক এবং বীর মুক্তিযোদ্ধা মোস্তফা কামাল দুলালের নামে নামকরণকৃত সুজানগর উপজেলা পরিষদ কমপ্লেক্স গেট হতে উপজেলা পরিষদ পর্যন্ত বীর মুক্তিযোদ্ধা মোস্তফা কামাল দুলাল সড়ক উদ্বোধন করেন। শেষে তিনি তার বাবা প্রয়াত স্যামসন এইচ চৌধুরীর ৯৫তম জন্মদিন উপলক্ষে দুঃস্থদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন।