প্রধান সূচি

ছাত্রীকে আপত্তিকর প্রস্তাব

সাঁথিয়ায় বিদ্যালয়ের দুই শিক্ষকের বিরুদ্ধে সড়ক অবরোধ ও বিক্ষোভ

সাঁথিয়া (পাবনা) প্রতিনিধিঃ
পাবনার সাঁথিয়া সরকারি পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বিজয় কুমার দেবনাথ ও সহকারী শিক্ষক বাবুল পাল এর বিরুদ্ধে ছাত্রীকে আপত্তিকর প্রস্তাব দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। শনিবার সকাল ১০টায় দুই শিক্ষকের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ মিছিল ও সাঁথিয়া উপজেলা সড়ক অবরোধ করে রাখে ছাত্র ছাত্রীরা। আলাদা আলাদা তদন্ত কমিটি গঠনে শান্ত হয় শিক্ষার্থীরা।
বিক্ষোভে শিক্ষার্থীরা জানায়, হেড স্যারের কাছে প্রাইভেট না পড়লে খারাপ আচরণ করে, ভয়ভীতি দেখায়। ১০ম শ্রেনীর এক শিক্ষার্থীকে কুপ্রস্তাব দেন প্রধান শিক্ষক। এছাড়াও সহকারী শিক্ষক বাবুল পাল অপর এক ছাত্রীকে একই প্রস্তাব দেন। তাদের বিরুদ্ধে গত ১৭ মে মঙ্গলবার শিক্ষার্থীরা বিদ্যালয়ের সভাপতি ও সাঁথিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর লিখিত অভিযোগ দিয়েছে। কয়েক দিন গত হলেও কোন প্রতিকার না পেয়ে শনিবার সকালে শিক্ষাথীরা ওই দুই শিক্ষকের অপসারণ, পদচ্যুতির দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও সড়ক অবরোধ করে। এসময় সাঁথিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার এসএম জামাল আহম্দে উপস্তিত হয়ে দুটি বিষয়ে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভ’মি) মনিরুজ্জামানকে প্রধান করে পৃথক পৃথক ৫ সদস্য বিশিষ্টি কমিটি গঠন ও আগামী তিন দিনের মধ্যে প্রতিবেদন প্রকাশের আশ^াসে শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ প্রত্যেহার করে।
এসময় উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আঃ কাদের বিশ^াস অভিযুক্ত শিক্ষকদের পক্ষ নেয়ায় শিক্ষার্থীরা তদন্ত কমিটিতে তাকে না রাখার জোড় দাবী জানায় ইউএনও’র কাছে।
প্রধান শিক্ষক বিজয় কুমার দেবনাথ মোবাইল ফোনে বলেন, এ বিষয়ে আমি কিছু জানি না বলেই ফোন কেটে দেন। বাবুল পালকে বার বার ফোন দিলেও রিসিভ করেন না।
স্কুলটির সভাপতি ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার এস এম জামাল অহমেদ জানান,তাদের বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীদের অভিযোগ পেয়েছি। কমিটির তদন্ত প্রতিবেদন সাপেক্ষে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।