প্রধান সূচি

বগুড়ায় বলাৎকারের অভিযোগে মাদরাসা শিক্ষক গ্রেফতার

  বগুড়া প্রতিনিধি: বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলায় মক্তব শ্রেণির শিশু শিক্ষার্থীকে বলাৎকারের অভিযোগে মাদ্রাসা শিক্ষককে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।
সোমবার দুপুরে তাকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। এর আগে, রোববার দিবাগত রাতে উপজেলার চাঁপাপুর গ্রাম থেকে তাকে গ্রেফতার করে বগুড়া র‌্যাব ক্যাম্পের একটি দল।
গ্রেফতারকৃত শিক্ষকের নাম মাহফুজ (৩৫)। তিনি আদমদীঘির চাঁপাপুর এলাকার আড়াইল ফয়জুল উলুম কওমী মাদ্রাসার শিক্ষকতা করেন। মাহফুজ চাঁপাপুর বাজার এলাকার মোহাম্মদ আলী কাজীর ছেলে।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বলাৎকারের শিকার ওই শিশু মাদ্রাসার আবাসিক ছাত্র এবং বগুড়া সদর উপজেলার বাসিন্দা। গত ১ জুন রাত সাড়ে ১০ টার দিকে খাবার খেয়ে মক্তবখানায় শুয়ে পড়ে শিশুটি। রাতেই তাকে ঘুম থেকে ডেকে তুলে মাদ্রাসার হেফজখানা রুমে নিয়ে যান শিক্ষক মাহফুজ। এবং সেখানে তাকে বলাৎকার করা হয়। পরে গত ৪ জুন শিশুটির সঙ্গে দেখা করার জন্য তার মা মাদ্রাসায় যান। ওই সময় শিশুটি তার মাকে সবকিছু খুলে বলে। তার মা ছেলের মুখে ঘটনার বর্ণনা শুনে মাদ্রাসার সভাপতি মকলেছার রহমানকে বিষয়টি অবগত করেন। সভাপতি ঘটনা শুনে শিক্ষক মাহফুজকে প্রতিষ্ঠান থেকে চাকরিচ্যুত করেন।পরবর্তীতে এ ঘটনায় শনিবার রাতে আদমদীঘি থানায় মামলা করেন শিশুটির বাবা। পরে অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত শিক্ষক মাহফুজকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। তাকে গ্রেফতারের পর থানায় হস্তান্তর করা হয়।

আদমদীঘি থানার ওসি মো. জালাল উদ্দীন জানান, গ্রেফতার মাহফুজকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।