প্রধান সূচি

বগুড়ায় যমুনা ও বাঙালি নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত: তলিয়ে গেছে ফসল, পানিবন্দি হাজারো মানুষ

বগুড়া প্রতিনিধি: পাহাড়ি ঢলে ও ভারি বর্ষণে বগুড়ায় যমুনা ও বাঙালি নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়ে বিপদসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬ টা থেকে বগুড়ার সারিয়াকান্দিতে যমুনার মথুরাপাড়া পয়েন্টে পানি বিপদসীমার ৬৪ সেন্টিমিটার (সেমি) ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে বলে জানিয়েছে পানি উন্নয়ন বোর্ড। একই সঙ্গে বাঙালি নদীন পানি বেড়ে বিপদসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এদিন সন্ধ্যা ৬ টা থেকে বাঙালি নদীর পানি বিপদসীমার ৩ দশমিক ৭ সেমির ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সারিয়াকান্দিতে যমুনা চরাঞ্চলের কাজলা, চালুয়াবাড়ী, হাটশেরপুর, সদরের আংশিক, চন্দনবাইশা, কর্ণিবাড়ী, বোহাইল ও কামালপুর ইউনিয়নের নিচু এলাকায় বন্যার পানি প্রবেশ করেছে। ফলে এই ইউনিয়নগুলোর প্রায় আট হাজার মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন। এছাড়াও উপজেলার হাটবাড়ী ও মানিকদাইড় চরে পানি বৃদ্ধির সঙ্গে শুরু হয়েছে ভাঙন। নদী ভাঙনে গত সাতদিনে অর্ধশতাধিক পরিবার গৃহহীন হয়ে পড়েছে। একই সঙ্গে বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে ফসলি জমি।

পানি উন্নয়ন বোর্ড সূত্রে জানা গেছে, যমুনা নদীর পানির বিপদসীমা নির্ধারণ করা হয় ১৬ দশমিক ৭০ মিটার। আর বাঙালি নদীর পানির বিপদসীমা নির্ধারণ করা হয় ১৫ দশমিক ৮৫ মিটার। বর্তমানে দুই নদীর পানি বিপদসীমা অতিক্রম করেছে।